মোদীকে ভয় পাওয়ার দিন শেষ, দিল্লি থেকে বিজেপিকে উচ্ছেদ করে পথ দেখাবে বাংলাই, ডেবরা থেকে ঘোষণা মমতার

সবাই বিজেপিকে ভয় পায়, কিন্তু কাউকে বিড়ালের গলায় ঘন্টাটা বাঁধতেই হোত, বাংলা সেই কাজ করেছে। পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরার জনসভা থেকে মন্তব্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
বুধবার ঘাঁটালের দলীয় প্রার্থী দেবের সমর্থনে ডেবরার জনসভা থেকে মমতার অভিযোগ, বিজেপি সরকারের আমলে দেশে জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে। কেউ স্বাধীন মতামত রাখতে পারেন না, কেন্দ্রীয় এজেন্সি থেকে সংবাদমাধ্যম সবাইকে ভয় পাইয়ে রেখেছে মোদীর নেতৃত্বাধীন ফ্যাসিস্ট সরকার, দাবি মমতার। এরপরেই তৃণমূল নেত্রী বলেন, বাংলা ভয় পায় না দিল্লি সরকারকে। কাউকে বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাঁধতেই হোত, আর সেই কাজটা বাংলা করেছে, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। বিয়াল্লিশের ভারত ছাড়ো আন্দোলনের মতো, ২০১৯ সালে ‘মোদী তুমি ক্ষমতা ছাড়ো আন্দোলন’ করতে হবে। তৃণমূল নেত্রীর কথায়, স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় যে মেদিনীপুর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছিল, তারা যেন দাঙ্গাবাজ সরকারের বিরুদ্ধেও রুখে দাঁড়ায়। নরেন্দ্র মোদীর চা বিক্রি করার দাবির সত্যতা নিয়েও এদিন প্রশ্ন তোলেন মমতা।
দিল্লি সরকার বরাবর বাংলাকে বঞ্চনা আর অপমান করে এসেছে। এই বাংলাই আগামী দিনে দিল্লিতে সরকার গড়তে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেবে বলে মন্তব্য করেন তৃণমূল নেত্রী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করে মমতার অভিযোগ, গত পাঁচ বছরের মধ্যে সাড়ে চার বছর বিদেশে ঘুরে বেড়িয়েছেন। তৃণমূল নেত্রীর স্লোগান, চৌকিদার নয়, দেশের ওয়াফাদার চাই।

Comments
Loading...