ঝাড়গ্রামের BJP প্রার্থী ভোট কিনতে টাকা বিলোচ্ছেন! ভাইরাল ভিডিও নিয়ে তোপ মমতার

বিনা যুদ্ধে এক ইঞ্চি জমি ছাড়ব না

বাঁকুড়ার পর পুরুলিয়া। সোমবারের পর মঙ্গলবারও লাগাতার তিন জনসভা করলেন তৃণমূল নেত্রী। আর প্রতিটি জনসভা থেকে চাঁচাছোলা ভাষায় নিশানা করলেন বিজেপিকে। 

এদিন মমতা ব্যানার্জির প্রথম সভা ছিল পারা বিধানসভার সগড়কা মাঠে। সেখানে সভা শেষ করে মমতা আসেন কাশীপুর কেন্দ্রের এসবি মাঠে। দিনের শেষ জনসভা পুরুলিয়ারই রঘুনাথপুর বিধানসভার গোবাগে।

এদিন শুরু থেকেই মোদী-শাহকে আক্রমণের সুর চড়ান তৃণমূল নেত্রী। পাশাপাশি করেন এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। পুরুলিয়ার সভা থেকে মমতা বলেন, আজ সকালে একটা ভিডিও দেখলাম। সেখানে ঝাড়গ্রামের বিজেপি প্রার্থী বলছেন, আগেরদিন আসিস ভোটের খরচ দিয়ে দেব। মমতার প্রশ্ন, কার টাকা কাকে দেবেন বিজেপি প্রার্থী? এই টাকা কি বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি? তৃণমূল নেত্রী উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ভোটের আগে পকেটে টাকা গুজে দিয়ে বলবে ভোটটা বিজেপিকে দে। এটা সাধারণ মানুষের টাকা। তাঁর পরামর্শ, বিজেপির কেউ টাকা বিলোতে এলে বলবেন, কোটি কোটি টাকা চুরি করেছিস! মমতার অভিযোগ, চুরির টাকা বিলিয়ে ভোটে জেতার দিবাস্বপ্ন দেখছে বিজেপি। টাকা নেবেন কি নেবেন না সেটা আপনার বিষয়, কিন্তু টাকা নিয়ে নিজের ভোট বিক্রি করবেন না। বলেন মমতা। তাঁর অভিযোগ টাকা দিয়ে ভোট কিনে তারপর পগারপার হয় বিজেপি। ভারত সরকারের সত্যিকার সাঁটা গাড়িতে করেও টাকা বিলি করা হচ্ছে বলেও এদিন অভিযোগ করেন মমতা ব্যানার্জি। প্রশাসনের কাছে তাঁর আবেদন, এই দিকে সজাগ দৃষ্টি দেওয়া হোক। 

কাশীপুরের সভায় মমতা ব্যানার্জির মুখে উঠে আসে সংরক্ষণ প্রসঙ্গ। তিনি বলেন, ফিরে এসে মণ্ডল কমিশনের অন্তর্গত সবাইকে ওবিসি তালিকাভুক্ত করবে মা-মাটি-মানুষের সরকার। 

এদিন মমতার কথায় বারবার উঠে আসে এলাকার বিজেপি সাংসদদের দেখতে না পাওয়ার কথা। বলেন, মিথ্যে বলে আমাদের হারিয়ে সাংসদ জিতিয়ে নিয়ে সেই যে গেল বিজেপি তার আর দেখা নেই। এরপরই তৃণমূল নেত্রীর প্রশ্ন, এবারও কি এরকম উড়নচণ্ডী প্রার্থী চাই? জনতা সমস্বরে জবাব দেয়, না চাই না।

কেন্দ্রের বেসরকারিকরণ নিয়েও তীব্র বিরোধিতার সুর ঝরে পড়ে মমতার গলায়। বলেন, রেল বেচে দেওয়ার চক্রান্ত করছে মোদী সরকার। এটা মানব না, রাস্তায় নেমে আন্দোলন করব। দেখি কীভাবে রেল বিক্রি করে পকেট ভরাও বিজেপি। এক পা ভেঙ্গেছে তো কী হয়েছে, লড়াইয়ের ময়দানে বিনা যুদ্ধে এক ইঞ্চি জমি ছাড়ব না। মমতা ব্যানার্জি বলেন, দেখি কেমন দেশ বিক্রি করে ফুর্তি করতে পারো।  

Comments
Loading...