কেন্দ্র রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে ইচ্ছেমতো টাকা তুলে নিচ্ছে, আমাদের সেই সুবিধে নেই, শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠানে কেন্দ্রকে নিশানা মুখ্যমন্ত্রীর

‘কেন্দ্রের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আছে, যখন-তখন টাকা তুলে নিচ্ছে, আমাদের সেই সুবিধা নেই। অর্থনীতিতে খুব খারাপ দিন আসছে’, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
বৃহস্পতিবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠান থেকে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মুখমন্ত্রী। বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে গত কয়েক মাসে কখনও প্যারা টিচার, প্রাথমিক শিক্ষকরা আন্দোলন-অনশন করেছেন। এই প্রেক্ষিতে শিক্ষক দিবসে মমতা দেশের অর্থনীতি নিয়ে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করেন। শিক্ষকদের বিভিন্ন দাবিকে মান্যতা দিলেও রাজ্য সরকারের আর্থিক সীমাবদ্ধতার কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতার কথায়, ‘আজ মাইনে দিতে পারছি, অসুবিধা সত্ত্বেও আশা করি দিয়ে যেতে পারব’। কিন্তু দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ‘খুব খারাপ’ বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তৃণমূল নেত্রী। বলেন, অর্থনীতিতে যদি ধস নামে তা সামাল দেওয়া কঠিন হবে।
বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতির সঙ্গে বউবাজারে বাড়ি বিপর্যয়ের তুলনা টানেন তিনি। মমতা আরও বলেন, বাংলা থেকে একটার পর একটা ব্যাঙ্ক যদি চলে যায় তাহলে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি কীরকম তা ভেবে দেখা দরকার। তবে আর্থিক প্রতিকূলতা সত্ত্বেও গত ৮ বছরে তাঁর সরকার যে কাজ করেছে তা ৮০ বছরেও হয়নি বলে চ্যালেঞ্জ ছোঁড়েন মুখ্যমন্ত্রী। সেই সঙ্গে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে কটাক্ষ করেন। বলেন, কেন্দ্রের মতো রাজ্য সরকারের হাতে একটা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক নেই, যে টাকা তুলে নিতে পারবে। তাঁর অভিযোগ, কেন্দ্র করের টাকা ঠিকমতো নিয়ে নিলেও রাজ্যকে সাহায্যের ব্যাপারে গড়িমসি করে। তা সত্ত্বেও সর্বশিক্ষা অভিযান থেকে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করছে তাঁর সরকার, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। শিক্ষকদের দাবিদাওয়ার প্রেক্ষিতে এদিন ফের কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগ করে মমতা বলেন, তাঁর বাড়তি বেতন দিতে কোনও আপত্তি নেই, কিন্তু কোথা থেকে দেবেন? তাঁর কথায়, ত্রিপুরার মতো বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে যখন পেনশন তুলে দেওয়া হয়েছে, সেখানে তাঁর সরকার অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের সংসারের কথা ভেবে তা করেননি। পাশাপাশি, অবসর গ্রহণের পর যাতে তাড়াতাড়ি পেনশন পেতে পারেন তার জন্য ই-পেনশন চালু করা হয়েছে বলে জানান মমতা।

Comments
Loading...