এমএলএ, পঞ্চায়েত মেম্বাররা অ্যাক্টিভ হোন, মানুষের সুখ-দুঃখের পাশে দাঁড়ান, বাঁকুড়ার জনপ্রতিনিধিদের বললেন মুখ্যমন্ত্রী

কোথাও ওভারহেড ট্যাঙ্কের কাজ অর্ধেক ছেড়ে পালানো কনট্রাক্টরকে ধরে আনার নির্দেশ আবার কখনও রেলের উচ্ছেদের বিরুদ্ধে দলের জন প্রতিনিধিদের লড়ে নেওয়ার পরামর্শ, বাঁকুড়া জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী আদ্যন্ত প্রশাসকের ভূমিকায়। 

গত দুদিন ধরে বাঁকুড়া জেলায় রয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। কথা বলছেন বিভিন্ন স্তরের মানুষের সঙ্গে। অভাব-অভিযোগের খানা তল্লাস করছে সরেজমিনে। মঙ্গলবারের বৈঠকে প্রশাসনকে আরও সচল করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু নজর কেড়েছে মমতার জন প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথোপকথনের অংশ। 

মূলত মাটিতে ফিরে যেতে বলেছেন মমতা। মানুষের পাশে থাকাই যে জন প্রতিনিধির একমাত্র কাজ, বারবার তা বুঝিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থাকতে হবে। ভরসার জায়গা হয়ে উঠতে হবে। তাঁর কথায়, এমএলএ, পঞ্চায়েত সদস্যরা অ্যাকটিভ হোন।

বিধায়ক জ্যোৎস্না মান্ডির একটি প্রকল্প সংক্রান্ত প্রস্তাব মনে ধরায় তা সরাসরি অফিসারদের কাছে জমা করার নির্দেশ দেন। আবার আরেক বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূল সভাপতি শ্যামল সাঁতরার দাবিদাওয়া না থামায় ধমকে তাঁকে থামান মমতা। বলেন কিছুই তো ছিল না, এখন অনেক কিছু হয়েছে। এবার ভোটটা করো ঠিক করে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ভাল করে ভোটটা করো। কে বলতে পারে পরবর্তী মেডিকেল কলেজটা বাঁকুড়ায় হবে না! 

আরেক বিধায়ক অরূপ চক্রবর্তী মুখ্যমন্ত্রীকে রেলের একটি বস্তি উচ্ছেদ নিয়ে নালিশ জানান। বলেন, বুলডোজার নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে, যে কোনও সময় ঢুকে পড়বে। মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে সঙ্গে বলেন, এইভাবে উচ্ছেদ হবে না। আমি জোর করে জমি নিই না, এটাই আমার পলিসি। অলটারনেটিভ ব্যবস্থা না করে কাউকে উচ্ছেদ করা যাবে না। অরূপকে মমতার নির্দেশ, তোমরা ব্যপারটা লড়ে নাও, আইনি দিকটা কল্যাণ (ব্যানার্জি) দেখবে। ওরকম লড়াই আমি অনেক করেছি। 

মমতার বাঁকুড়া সফরে ঘুরেফিরে এসেছে বিষ্ণুপুর সিল্ক প্রসঙ্গও। প্রশাসনিক বৈঠকে মমতা ব্যানার্জি বলেন, বালুচুরির ডিজাইনে ভ্যারাইটি আনতে হবে। আগে বালুচুরি ছিল কড়কড়ে। এখনকার মেয়েরা অত ভারি শাড়ি পড়েন না। মমতার কথায়, আমি বলে বলে শাড়ি হাল্কা করিয়েছি। এখন বালুচুরি অনেক হাল্কা।

সব মিলিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকে পুরোদস্তুর প্রশাসকের ভূমিকায় মমতা ব্যানার্জি। ভোটমুখী বাংলায় রাজনীতির পারদ চড়ছে।     

Comments
Loading...