সৌগত রায়: অমিত শাহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মর্যাদা রাখছেন না, নাড্ডা আগে বাংলা চিনুন

ফের বিজেপিকে বাংলা বিরোধী ও রাজ্যে আগত কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতাদের পরিযায়ী বলে আক্রমণ করল তৃণমূল। মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠক থেকে সাংসদ সৌগত রায়ের অভিযোগ, অমিত শাহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মর্যাদা রাখছেন না। 

তৃণমূলের প্রবীণ সাংসদের কথায়, বাংলায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এলে তিনি দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা, সীমান্তে গরু পাচার ইস্যু, ভুটানে ভারত বিরোধী ঘটনার খোঁজখবর করবেন, এটাই দস্তুর। কিন্তু আমরা দেখলাম, বাঁকুড়ায় কোনও মূর্তির গলায় মালা দেওয়া, কারও বাড়িতে গিয়ে খাওয়া-দাওয়া করছেন অমিত শাহ। এগুলো কি একজন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাজ? কটাক্ষ সৌগতের। সেই সঙ্গে এদিন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডাকেও খোঁচা দেন। তাঁর ঘনঘন বাংলা সফর প্রসঙ্গে সৌগত বলেন, হিমাচল প্রদেশে এখন তীব্র ঠান্ডা। তাই সেখানকার মানুষ নাড্ডা উষ্ণ আবহাওয়ার খোঁজে বাংলায় আসছেন। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের বাংলায় পর্যবেক্ষক হয়ে আসাকে পরিযায়ী পাখির সঙ্গে তুলনা করেছেন তৃণমূল সাংসদ। তাঁর দাবি, বঙ্গ বিজেপির অন্তর্কলহে অতিষ্ঠ দিল্লিতে বিজেপির শীর্ষ নেতারা। তার ওপর মমতা ব্যানার্জির সমতুল্য কাউকে পায়নি গেরুয়া শিবির। তাই এক প্রকার বাধ্য হয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের পর্যবেক্ষক করে বাংলায় পাঠানো হচ্ছে। এই প্রেক্ষিতে নাম না করে বাংলায় বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক তথা বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যকে ভুয়ো খবর প্রচারে বিশেষ পারদর্শী বলে নিশানা করেন সৌগত। তাঁর অভিযোগ, বিভাজনের রাজনীতি করে রাজ্যের শান্তি বিঘ্নিত করতে চাইছেন। পাশাপাশি কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে তীব্র কটাক্ষ করে সৌগত বলেন, তাঁর রাজনৈতিক জীবনে রাজনীতির এমন অবনমন দেখেননি। সুপ্রিম কোর্ট, সিবিআই, রাজ্যপালের মতো নিরপেক্ষ সংস্থা ও পদগুলির অবনমনের জন্য মোদী সরকারকে নিশানা করেন তিনি।

Comments
Loading...