বি-দিয়ে ভবানীপুর, বি-দিয়ে ভারতবর্ষ; পদ্মপুকুরে প্রচারে মন্তব্য মমতার

বুধবার একবালপুরে প্রচারে গিয়ে তৃণমূল নেত্রী বলেছিলেন, আপনাদের এক একটি ভোট আমায় দিল্লির পথে পা বাড়াতে সাহায্য করবে। আর এদিন পদ্ম পুকুরে প্রচারে গিয়েও যেন ২০২৪ এর লড়াইয়েরও সুর বাঁধলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার পদ্ম পুকুরে উপনির্বাচনের প্রচারের জনসভা করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বহু ধর্মের মানুষের বসবাস ভবানীপুরে। সে কথাকে মাথায় রেখেই নিজের নির্বাচনী ক্ষেত্রকে ভারতবর্ষেরই ছোট সংস্করণ বলে বোঝাতে চাইলেন তিনি। বুধবারের প্রচারে গিয়ে ভবানীপুরবাসীর উদ্দেশ্য-এ বলেছিলেন ভবানীপুরে যে চারাগাছ পুতবেন দিল্লিতে গিয়ে তা মহিরুহের আকার নেব। এদিনও কার্যত সেই বার্তা দিলেন।

সেই সঙ্গে তাঁর বক্তব্যে উঠে এল বিতর্কিত তিন কৃষি আইনের কথা। তিনি এদিনও বলেন, আমি সব সময় কৃষকের পাশে রয়েছি। কৃষক আন্দোলনের প্রতি সম্মান দেখাতেই নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়িয়েছিলাম। কিন্তু বিজেপি আমায় চক্রান্ত করে হারিয়েছে। আদালতে মামলাটি রয়েছে। আসল সত্যি শীঘ্রই প্রকাশ পাবে।

বিজেপিকে বিঁধতে এদিনও তিনি ত্রিপুরা প্রসঙ্গ তোলেন। বলেন ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ওখানে ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে। তাহলে পুজো হবে কী করে? এই বিজেপি আবার বাংলায় এসে দুর্গা পুজোর নামে অপ্রচার করে।

পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, ভবানীপুরে তৃণমূলের জয় নিয়ে সংশয় কম। কিন্তু সাধারণত উপনির্বাচনে ভোট দানের হার কম থাকে। এই প্রবণতায় ভাঙতে চাইছে ঘাসফুল শিবির। এদিনও মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ঝড়, জল যাই হোক, সকলে ভোট দেবেন। আপনাদের এক একটা ভোট আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

Comments
Loading...