নির্বাচনী সংস্কারের দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, সর্বদলীয় বৈঠক ডাকার আর্জি

নির্বাচনী সংস্কারের দাবি আগেই করেছিলেন। এবার একই দাবিতে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচনে অর্থের ব্যবহার নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকার আর্জি। সরকারি তহবিলের মাধ্যমে নির্বাচন পরিচালনার দাবি।

প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানো চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, লোকসভা নির্বাচনের পরে জানা গিয়েছে, এবারের ভোটে খরচ হয়েছে কমপক্ষে ৬০ হাজার কোটি টাকা, যা বিশ্বের ইতিহাসে সর্বকালীন রেকর্ড। ২০১৪ সালের ভোটে যা খরচ হয়েছিল, এবার খরচ হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ। এই গতিতেই চলতে থাকলে, ২০২৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে খরচ হবে ১ লক্ষ কোটি টাকা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিঠিতে সেন্টার ফর মিডিয়া স্টাডিজের চেয়ারপার্সন ডক্টর এন ভাস্কর রাওকে উদ্ধৃত করে লিখেছেন, সমস্ত দুর্নীতির শিকড় লুকিয়ে রয়েছে নির্বাচনী খরচের মধ্যে। আমরা একে রুখতে না পারলে, কীভাবে সর্বস্তরে দুর্নীতির মোকাবিলা করব?

পাশাপাশি ইন্টারন্যাশনাল আইডিয়াকে উদ্ধৃত করে মুখ্যমন্ত্রী চিঠিতে লিখেছেন, বিশ্বের 65টি দেশে সরাসরি সরকারি খরচে নির্বাচন সংগঠিত হয়। পাশাপাশি বেলজিয়াম, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইংল্যান্ড, সিঙ্গাপুরের মতো ৭১ টি দেশে রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য বিনামূল্যে সংবাদমাধ্যমে প্রচার চালানোর সুবিধা আছে। কিন্তু ভারতে কেবলমাত্র অল ইন্ডিয়া রেডিও এবং দূরদর্শন ছাড়া এই সুবিধে পাওয়া যায় না, বলেও চিঠিতে লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

নির্বাচনী সংস্কারের দাবি এর আগেও একাধিকবার জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার এই ইস্যুতে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ভারতে সুষ্ঠু, অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচন পরিচালনা করতে নির্বাচনী সংস্কার প্রয়োজন, যেখানে সরকারি খরচে নির্বাচনে লড়াই করবে রাজনৈতিক দলগুলো, বলে চিঠিতে লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Comments
Loading...