এক হাতে ছাতা অন্য হাতে মাইক, মোদীকে টেক্কা দিতে রাজধানীতে ব্র্যান্ড মমতা?

বাদল অধিবেশনের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী ছাতা হাতে সাংবাদিক বৈঠক করেছিলেন। সেই ছবি ভাইরাল হয়েছিল নেট মাধ্যমে। একাধিক বিজেপি সমর্থক সেই ছবি পোস্ট করে মোদীর ভূয়সী প্রশংসা করেন। তাঁদের দাবি দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে নরেন্দ্র মোদী যেভাবে নিজের হাতে ছাতা ধরেছেন তা কার্যত দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছে। এবার সেই একই ছবি দেখা গেল তৃণমূল নেত্রীর ক্ষেত্রেও। আর এই দুই যুযুধান পক্ষের ছাতা হাতে ছবি বিশেষ মাত্রা যোগ করল মমতার দিল্লি সফরে।

রাজনৈতিক মহলের মতে সাদামাটা জীবনে বিশ্বাসী তৃণমূল সুপ্রিমো যেন বিজেপি সমর্থকদের বলতে চাইলেন, রাজনীতিকদের নিজে হাতে ছাতা ধরাটা অত্যন্ত স্বাভাবিক একটি ঘটনা, একে আলাদা গুরুত্ব দেওয়ার কিছু নেই।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার মোদীর সঙ্গে বৈঠক শেষে বিকেল ৪.৪৫ নাগাদ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন থেকে বেরিয়ে আসেন মুখ্যমন্ত্রী। বাইরে তখন মুষলধারে বৃষ্টি। একহাতে ছাতা ধরে আরেক হাতে মাইক নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তৃণমূল নেত্রী। তবে কুণাল ঘোষ এই দৃশ্যের ছবি ট্যুইট করে প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারের দাবিদার হিসেবে ফের একবার মমতা ব্যানার্জির নাম উস্কে দেন।

ছাতা হাতে তৃণমূল সুপ্রিমোর ছবি ট্যুইট করে কুণাল লেখেন, বৃষ্টিতে ছাতা নিজের হাতে। ২০২৪-এ এই ছাতা ধরবেন দেশবাসীর মাথায়। মোদী সরকারকে কটাক্ষ করে রাজ্য সভার প্রাক্তন সাংসদের দাবি, জনবিরোধী নীতির কালো মেঘের দুর্যোগ থেকে বাঁচাতে মমতাই ভরসা। দিল্লি যাত্রার মধ্যে দিয়ে ইতিমধ্যেই যে ২৪’র মহাযুদ্ধের সূচনা করে দিয়েছে তৃণমূল সুপ্রিমো তাও এদিনের ট্যুইটে কৌশলে জানিয়ে দেন তিনি।

একগুচ্ছ কর্মসূচি নিয়ে রাজধানীতে পা দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। দিল্লি সফরের বেশিরভাগ সময়টাই যে তিনি আগামী লোকসভা ভোটে বিজেপি বিরোধী জোট গঠনের জন্য জমি প্রস্তুত করতে ব্যস্ত থাকবেন তা এদিনের কর্মসূচিতে স্পষ্ট।

Comments
Loading...