বিজেপি নেতা ও তাঁর মায়ের করোনার চিকিৎসা আমি করিয়েছি, পার্টি ফোন ধরেনি, বিজেপিকে খোঁচা মমতা ব্যানার্জির

গোটা বিশ্বেই বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ভারত তথা বাংলাও তার ব্যতিক্রম নয়। মোকাবিলায় ৯ জুলাই, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫ টা থেকে ফের রাজ্যের কনটেইনমেন্ট জোনে চালু হয়ে যাবে কঠোর লকডাউন। এই অবস্থায় মানুষকে যতটা সম্ভব ঘরে থাকার পরামর্শ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বললেন, টেস্ট বেশি হচ্ছে তাই সংক্রমিতের সংখ্যা বাড়ছে। তবে তাতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। মাস্ক ব্যবহার করুন, সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলুন এবং বারবার হাত ধোন, বলেন মমতা।
বুধবার হাজরা মোড়ে কলকাতা পুলিশের সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ অনুষ্ঠানের মঞ্চে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই করোনা নিয়ে মানুষকে সতর্ক করার পাশাপাশি ভয় না পেতে আবেদন করেন। এই প্রসঙ্গেই চলে আসে বিজেপির এক নেতার কথা। মমতা ব্যানার্জি বলেন, বিজেপির কোনও এক প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর মা করোনা সংক্রমিত হয়ে পড়েছিলেন। বারবার ফোন করেও পার্টির কেউ ফোন ধরেননি। স্থানীয় থানা সূত্রে খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দেন, যত দ্রুত সম্ভব ভর্তি করার। ওই বিজেপি নেতা এবং তাঁর মায়ের চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়। আজ দু’জনেই সুস্থ।
মমতা ব্যানার্জি বলেন, করোনা সংক্রমণ এড়াতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নিজের সুরক্ষা। কোনও দোকানে ক্রেতার হাতে জিনিস দেওয়ার আগে একবার স্যানিটাইট করে নেওয়ার কথা বলেন তিনি। তাতে যদি কেউ অতিরিক্ত ১ টাকা নিতে চান, নিতে পারেন। মমতার কথায়, আমি জানি অতিরিক্ত কিছু না নিয়েই অনেকে এভাবে করছেন।

Comments
Loading...