ফিরছে মমতাই, তৃণমূলে যোগ দিয়ে ঘোষণা দীপঙ্কর দে’র

ঘাসফুলের দলীয় দলীয় পতাকা তুলে নেন বর্ষীয়ান অভিনেতা দীপঙ্কর দে, ভরত কল, লাভলি মৈত্র, ওস্তাদ রশিদ খানের মেয়ে শাওনা খান

বিধানসভা নির্বাচনের আগে ঘাসফুল শিবিরে একঝাঁক তারকা। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে ব্রাত্য বসুর হাত থেকে দলীয় পতাকা তুলে নেন বর্ষীয়ান অভিনেতা দীপঙ্কর দে, ভরত কল, লাভলি মৈত্র এবং ওস্তাদ রশিদ খানের মেয়ে শাওনা খান।

টালিগঞ্জের জনপ্রিয় তারকা দীপঙ্কর দে সত্যজিৎ রায়ের সীমাবদ্ধ, গণশত্রু, শাখাপ্রশাখা, আগন্তুক ছবিতে অভিনয় করেছেন। বাংলা সিনেমার মহীরুহ বলে পরিচিত দীপঙ্কর দে তৃণমূলে যোগ দিয়ে দাবি করলেন, ফিরছেন মমতাই। জানান, আমি বহুকাল ধরেই তৃণমূল সমর্থক। মমতা ব্যানার্জির হাত থেকে আমি বঙ্গভূষণ, বঙ্গবিভূষণ পুরস্কার নিয়েছি। আর যাইহোক আমি বেইমানি করতে পারব না। এদিন তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন টেলিভিশনের আরেক জনপ্রিয় মুখ ভরত কল। খাদ, জুলফিকর, বাদশাহি আংটির মত ছবিতে তাঁকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন- কয়লা পাচার কাণ্ডে এবার তদন্তে সিআইডি]

একইসঙ্গে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন লাভলি মৈত্র। ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ লাভলি অভিনয় করেছেন মোহর, জলনুপুর এর মত সিরিয়ালে।

ওস্তাদ রশিদ খানের মেয়ে শাওনা খানও এদিন যোগ দেন তৃণমূলে। শাওনা সঙ্গীত জগতের পাশাপাশি সামাজিক কাজের সঙ্গেও যুক্ত।

যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা তথা জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম। ব্রাত্য বসু বলেন, দেশে যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতে স্বাধীন মত প্রকাশের জায়গা ক্রমশ কমছে। এই অবস্থায় শিল্পীরা স্পষ্ট অবস্থান নিতে চাইছেন। তাই বাংলার শিল্পীরা মমতা ব্যানার্জির হাত শক্ত করতে চাইছেন। আগামী দিনে আরও অনেক শিল্পী তৃণমূলের পতাকাতলে আসতে চলেছেন বলেও দাবি করেন ব্রাত্য বসু।

অবশ্য তৃণমূলের সঙ্গে টালিগঞ্জের সম্পর্ক নতুন নয়। এর আগে সন্ধ্যা রায় থেকে শুরু করে দেব, নুসরত, মিমিরা তৃণমূলের টিকিটে সংসদে পৌঁছেছেন। এই বিশেষ সময়ে যখন বিজেপি বিরোধী শক্তিরা একজোট হচ্ছে তখন টালিগঞ্জের তাবড় শিল্পীদের মমতার হাত ধরা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

Comments
Loading...