প্রত্যেক জেলায় কন্যাশ্রী কলেজ গড়ার ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

মাতৃভাষাকে অবহেলা নয়, কখনও হতাশ হবেন না, কন্যাশ্রী প্রকল্পের বর্ষপূর্তিতে ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানালেন, আগামী দিনে প্রত্যেক জেলায় কন্যাশ্রী কলেজ করার পরিকল্পনার কথা। বুধবার নজরুল মঞ্চে কন্যাশ্রী প্রকল্পের ষষ্ঠ বর্ষপূর্তিতে পড়ুয়াদের চরিত্রগঠন, মানুষে মানুষে ভেদাভেদ না করা, সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে চলার বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী।
২০১৩ সালে কন্যাশ্রী প্রকল্পের সূচনা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন পর্যন্ত রাজ্যের প্রায় ৬০ লক্ষ মেয়ে কন্যাশ্রী প্রকল্পের সাহায্য পান। বুধবার এই প্রকল্পের ষষ্ঠ বর্ষপূর্তিতে মমতা বলেন, মেয়েদের ‘আই কিউ’ কম নয়, ছেলেদের থেকে তাঁরা কোনও অংশে কম নয়। মমতা বলেন, একটা সমাজ তখনই ভালো হয় যখন নারী ও পুরুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার সুযোগ পায়। তাই ছেলে-মেয়ে ভেদাভেদ না করে প্রত্যেককে শিশুকে সমানভাবে বড় করা উচিত, কন্যাশ্রীর বর্ষপূর্তিতে বার্তা মমতার। তাঁর মস্তিষ্কপ্রসূত কন্যাশ্রী প্রকল্প ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রসঙ্ঘে স্বীকৃতি পেয়েছে। সেই সূত্র ধরে মুখ্যমন্ত্রী জানান, আগামী দিনে প্রত্যেক জেলায় কন্যাশ্রী কলেজে তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর।
ছাত্রীদের পড়াশোনার পাশাপাশি মানবিক হতে পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই সঙ্গে তাঁর বার্তা, নিজেদের মাতৃভাষাকে যেন তাঁরা অবহেলা না করেন। মমতার কথায়, বাংলায় থাকব, কিন্তু ইংরেজি জানি বলে বাংলা বলব না, এটা ঠিক নয়। বাংলা মাধ্যমে পড়া ছাত্র-ছাত্রীদের হীনমন্যতায় না ভোগার পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী। পড়ুয়াদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা, দুর্বলতাই সবচেয়ে বড় শত্রু। তাই নিজেকে কখনও ছোট না ভাবা, হতাশায় না ভোগার পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

Comments
Loading...