৩৭০ নিয়ে মমতার তোপ: যে পদ্ধতিতে করা হল, তাকে সমর্থনের প্রশ্ন নেই, ওমর-মেহবুবারা জঙ্গি নন, ওঁদের মুক্তি দিক

সোমবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ঘোষণার পর পেরিয়ে গিয়েছে একদিন। সংসদে তাঁর দলের নেতারা তীব্র বিরোধিতা করেছেন, ওয়াকআউট করেছেন। দলীয় সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন গোটা ঘটনার সঙ্গে তুলনা টেনেছেন চারের দশকের জার্মানির। কিন্তু তিনি কিছু বলেননি। আসেনি তাঁর কোনও ট্যুইটও। একদিন পর, ডিএমকে সভাপতি স্ট্যালিনের ডাকে চেন্নাই রওনা হওয়ার আগে নিজের প্রতিক্রিয়া দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন, যে পদ্ধতিতে বিল পাশ করানো হল তা অগণতান্ত্রিক।

এদিন দুপুরে চেন্নাই উড়ে যাওয়ার আগে ধারা ৩৭০ নিয়ে মুখ খুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, যে পদ্ধতিতে বিলটি পাশ করিয়ে নেওয়া হল, তাতে আমাদের সমর্থন নেই। এর স্বপক্ষে ভোট দেওয়ার তো কোনও প্রশ্নই নেই। ওঁরা যেটা করেছেন তা একেবারেই অগণতান্ত্রিক। মুখ্যমন্ত্রী এর সঙ্গে যোগ করেন, এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কেন্দ্রের উচিত ছিল ব্যাপারটি আলোচনা করা এবং উপত্যকায় একটি সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা। পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি এবং ওমর আবদুল্লাকে গ্রেফতার করা নিয়েও তোপ দাগেন কেন্দ্রের উদ্দেশে। বলেন, ওঁরা জঙ্গি নন, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। ওঁদের দ্রুত মুক্তি দিতে হবে। কেন্দ্রের উচিত ছিল মানুষের মধ্যে ভয়ের বাতাবরণ তৈরি না করে মানুষকে নিজের সঙ্গে নেওয়া। তা করা হয়নি। বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওমর আবদুল্লা কিংবা মেহবুবা মুফতির সঙ্গে কোনওভাবেই মুখ্যমন্ত্রী যোগাযোগ করতে পারছেন না। তাঁদের জন্য উদ্বেগে আছেন, চেন্নাই উড়ে যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Comments
Loading...