দেশে ১২ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছে, কিন্তু রাজ্যে কেউ করেননি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিশানায় প্রধানমন্ত্রী।

কেন্দ্রের কৃষক বিরোধী নীতির জন্য বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিসহ গোটা দেশে ১২ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছেন, কিন্তু রাজ্যে একজন কৃষককেও আত্মহত্যা করতে হয়নি। শুক্রবার রাজ্য বিধানসভার অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে বক্তব্য রাখতে গিয়ে, এই ভাষাতেই কেন্দ্রের মোদি সরকারকে আক্রমণ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধায়। এদিন তিনি বলেন, রাজ্য সরকার সব সময় কৃষকদের পাশে আছে। তাই বন্যার সময় যে সব চাষির চাষের জমি ভেসে গিয়েছিল তাঁদের খাজনা মুকুব করা হয়েছে। আরও নানা অনুদানসহ রাজ্য সরকার কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি এরাজ্যে কৃষকদের আয় ৩ শতাংশ বেড়েছে।
এদিন কেন্দ্রের সমালোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ধানের সহায়ক মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছে কেন্দ্র। তাঁর দাবি, ধানের সহায়ক মূল্য বেড়েছে মাত্র ২০০ টাকা, অথচ কেন্দ্র দাবি করছে তা ৫০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, কেন্দ্রের নীতির জন্যই দেশে কৃষকদের সমস্যা বাড়ছে। একদিকে তাঁরা ফসলের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না, উল্টে তাঁদের উপর চাপছে ঋণের দায়। ফলে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা। মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, কেন্দ্র ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে, অথচ এরাজ্য বাদে বাকি দেশে কৃষিতে সেরকম উন্নতি হয়নি। তাহলে আয় দ্বিগুণ হবে কী করে।

Comments
Loading...