কাঁথিতে অমিত শাহর সভার পর তীব্র সংঘর্ষ, ফোনে মমতা-রাজনাথ বাদানুবাদ

আভাস ছিলই। তৃণমূল-বিজেপি সংঘাত শেষ পর্যন্ত বেধেই গেল।
মঙ্গলবার কাঁথিতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর সভা শেষ হওয়া মাত্রই কাঁথি এবং পূর্ব মেদিনীপুরের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়ে গেল তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষ। একাধিক বাস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। ভাঙচুর হয় তৃণমূল-বিজেপি দু’দলেরই পার্টি অফিস। যাকে কেন্দ্র করে এদিন সন্ধ্যায় একপ্রস্থ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হল মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহের।
সূত্রের খবর, মঙ্গলবার বিকেলে কাঁথিসহ পূর্ব মেদিনীপুরের নানা জায়গায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষের পর রাজনাথ সিংহ ফোন করেন মুখ্যমন্ত্রীকে। বিজেপি কর্মীদের ওপর আক্রমণ এবং রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও তাঁকে পালটা বলেন, বিজেপির প্ররোচণাতেই এই ঘটনা ঘটেছে। বিজেপি কর্মীরাই আক্রমণ চালিয়েছে নানা জায়গায়। বাইরে থেকে সশস্ত্র দুষ্কৃতীদেরও আনান হয় অমিত শাহর সভার জন্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেন, আপনাদের নেতা-কর্মীদের নিয়ন্ত্রণ করুন।
রথযাত্রা এবং ব্রিগেড কর্মসূচি বাতিল হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী, অমিত শাহসহ বিজেপির একাধিক প্রথম সারির নেতা এবং মুখ্যমন্ত্রী এরাজ্যে টানা দু’সপ্তাহের কর্মসূচি নিয়েছেন। তারই অঙ্গ হিসেবে মঙ্গলবার কাঁথিতে ছিল অমিত শাহর সভা। এরপর পরপর বিপ্লব দেব, যোদী আদিত্যনাথ, অমিত শাহ এবং খোদ নরেন্দ্র মোদীর একাধিক সভা রয়েছে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

Comments
Loading...