উত্তরপ্রদেশে ফের মিড ডে মিল বিতর্ক: খাবারে মরা ইঁদুর, ৯ পড়ুয়া ও শিক্ষক অসুস্থ

মিড ডে মিল নিয়ে একের পর এক অভিযোগে বিদ্ধ হচ্ছে যোগী আদিত্যনাথের সরকার। মির্জাপুর, সোনভদ্রের পর এবার মুজফফরনগর। মিড ডে মিল নিয়ে ফের খবরে উঠে এল উত্তরপ্রদেশ।
অভিযোগ, মুজফফরনগরের একটি সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের মিড ডে মিলে পাওয়া গিয়েছে মরা ইঁদুর। আর সেই খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে শিক্ষক, পড়ুয়া সহ মোট ৯ জন।
এর আগে গত অগাস্টে মির্জাপুরের এক স্কুলের পড়ুয়াদের মিড ডে মিলে নুন দিয়ে রুটি পরিবেশন করার ছবি সামনে আসার পর হইচই শুরু হয়। সোনভদ্রের একটি স্কুলে এক লিটার দুধ জলে মিশিয়ে ৮১ জন পড়ুয়াকে খেতে দেওয়ার অভিযোগেও তুলকালাম হয় দিন কয়েক আগে।
এবারের ঘটনা মুজাফফরপুরের। জানা গিয়েছে, সেখানকার মুস্তাফাবাদের জনতা ইন্টার কলেজ সরকারি স্কুলে এই কাণ্ড ঘটেছে। অভিযোগ, মঙ্গলবার পড়ুয়াদের জন্য যে খাবারের মেনু থাকে, তাই বানানো হয়েছিল। সবজি দিয়ে একটা ডাল আর ভাত। সেই ডালের মধ্যে ইঁদুর ভাসতে দেখা যায়। খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে বেশ কয়েক জন। খবর ছড়াতেই স্কুল চত্বরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। অভিভাবকদেক অভিযোগ, এর আগেও কয়েকবার এই স্কুলে পুরনো খাবার দেওয়া হয়েছিল পড়ুয়াদের। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ সে কথা অস্বীকার করেছে।
স্থানীয় এক গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য এই মিড ডে মিলের ছবি তোলেন। এই ছবি ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। স্কুল শিক্ষকদের দাবি, মিড ডে মিল নিয়ে এই স্কুলে আগে কখনও অভিযোগ ওঠেনি। এটা নিছকই দুর্ঘটনা। যদিও এই ঘটনায় স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে খাবার তৈরির দায়িত্বপ্রাপ্ত এনজিওর বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের হয়েছে। গোটা ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে।
গত মাসে কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী রমেশ পোখরিয়ালও জানিয়েছিলেন, দেশের মধ্যে মিড ডে মিল নিয়ে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ মিলেছে উত্তরপ্রদেশ থেকেই।

 

Comments
Loading...