২০১৪ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত মোদীর বিদেশ সফরের জন্য বিমান খরচ ২ হাজার ২১ কোটি টাকা

২০১৪ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর কালে চার্টার্ড বিমানে রক্ষণাবেক্ষণ এবং হটলাইনের সুবিধার জন্য মোট ২ হাজার ২১ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে। রাজ্যসভায় একটি প্রশ্নের জবাবে শুক্রবার একথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিংহ। ২০১৪ সালের জুন মাস থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সফররত দেশগুলির তালিকা পেশ করেন তিনি। যে দেশগুলি থেকে ভারতে সর্বাধিক বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে তারও তালিকা দিয়েছেন পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী।
ভি কে সিংহ জানান, ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ইউপিএ প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের আমলে চার্টার্ড বিমানের রক্ষণাবেক্ষণ ও হটলাইনের সুবিধার জন্য ১ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা খরচ হয়।
২০০৯ সালে কেন্দ্রে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর এখনও পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিদেশ সফরে বিমান ও হটলাইনের খরচ লক্ষণীয়ভাবে বেড়েছে। ভি কে সিংহের দেওয়া তথ্য অনুসারে, মোদীর বিমান রক্ষণাবেক্ষণের জন্য খরচ হয় ১ হাজার ৫৮৩ কোটি টাকা। ২০১৪ সালের জুন থেকে ২০১৮ সালের ৩রা ডিসেম্বর পর্যন্ত চার্টার্ড বিমানের জন্য ব্যয় হয়েছে ৪২৯.২৫ কোটি টাকা। এছাড়া হটলাইনে মোট ব্যয় ছিল ৯.১১ কোটি টাকা।
প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ৪৮ টি বিদেশ সফর করেছেন মোদী। ৫৫ টিরও বেশি দেশে গিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে অবশ্য কয়েকটি দেশে একাধিকবার গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে ২০১৭-১৮ সালের হটলাইনের খরচ এই ব্যয় তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।
ভি কে সিংহের দেয় তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে বিদেশ সফর কালে চার্টার্ড বিমানে খরচ হয় ৯৩.৭৬ কোটি টাকা। ২০১৫-১৬ সালে খরচ হয়েছিল ১১৭.৮৯ কোটি টাকা। ২০১৭-১৮ আর্থিক বছরে চার্টার্ড বিমানের খরচ হয় ৯৯.৩২ কোটি টাকা। ২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ সালের ৩ রা ডিসেম্বর পর্যন্ত এই খরচ হয়েছে ৪২.০১ কোটি টাকা।

Comments
Loading...