তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ফোবর্স ম্যাগাজিনের কুড়ি প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের তালিকায়! দেখে নিন, আর কে কে আছেন এই তালিকায়?

ফোবর্স ম্যাগাজিনে প্রকাশিত ২০২০ সালের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের তালিকায় জায়গা করে নিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। এই তালিকায় কৃষ্ণনগরের সাংসদ ছাড়াও ভারতীয়দের মধ্যে রয়েছেন সিপিআই-এর যুব নেতা কানহাইয়া কুমার, ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর প্রমুখ।
২০২০ সালে বিশ্বের কোন কুড়িটি মুখের দিকে দৃষ্টি থাকবে সবার এবং পরের দশকে কারা হতে পারেন উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব, এ নিয়ে একটি তালিকা তৈরি করেছে বিশ্ববিখ্যাত ফোবর্স পত্রিকা। এই তালিকায় উঠে এসেছেন পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিবিদ মহুয়া মৈত্র। প্রথমবার সাংসদ হয়ে গত বছরের ২৫ জুন লোকসভায় প্রথম ভাষণেই যিনি তারিফ কুড়িয়েছেন, আবার সেই ভাষণ ঘিরে বিতর্কও সৃষ্টি হয়েছে, তাঁকেই ২০২০ সালে বিশ্বের অন্যতম মুখ হিসেবে দেখছে ফোবর্স।
ইনভেস্টমেন্ট ব্যাঙ্কারের পাকা চাকরি ছেড়ে ২০০৯ সালে ভারতীয় রাজনীতিতে প্রবেশ মহুয়ার। প্রথমে কংগ্রেসে থাকলেও পরে তৃণমূল কংগ্রসে নাম লেখান। নদিয়ার করিমপুরের বিধায়ক হওয়া থেকে কৃষ্ণনগরের সাংসদ, রাজনীতিতে ‘জায়েন্ট কিলার’ বছর ৪২ এর মহুয়া। ২০১৯ সালে লোকসভায় তাঁর প্রথম ভাষণ দলের অন্দরে তো বটেই, অনেক বিরোধী নেতারও প্রশংসা কুড়িয়েছে। সেই কথার উল্লেখ করে ফোবর্সে লেখা হয়েছে, লোকসভায় মহুয়া তাঁর প্রথম ভাষণেই আগুন ঝরিয়েছেন। বিজেপি শাসনকালে দেশ যে ক্রমশ ফ্যাসিবাদের দিকে এগোচ্ছে, সে কথা বলতে গিয়ে ভাষণে সাতটি লক্ষণের কথা তুলে ধরেন মহুয়া।
কিছু সংবাদমাধ্যম দাবি করে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে লেখা মার্টিন লংম্যানের একটি প্রবন্ধ হুবহু টুকে ওই ভাষণ তৈরি করেছেন মহুয়া। যদিও সেই প্রবন্ধের লেখক লংম্যান নিজেই জানিয়েছিলেন, মহুয়ার ভাষণ তাঁর প্রবন্ধের নকল নয়। মহুয়া জানান, আমেরিকার হলোকাস্ট মেমোরিয়ালের একটি পোস্টার থেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে এই ভাষণ পেশ করেন তিনি। এ নিয়ে জি নিউজের এডিটর-ইন-চিফ সুধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে তাঁর দায়ের করা মানহানি অভিযোগ এবং সুধীর চৌধুরীর পাল্টা মামলা এখনও আদালতে চলছে। তাছাড়া কেন্দ্রের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের, নেট-দুনিয়ায় কেন্দ্রীয় তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের নজরদারির বিরুদ্ধে ও আধার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নেট মামলায় জয়লাভ ইত্যাদি দেশব্যাপী পরিচিতি দিয়েছে মহুয়াকে। আগামী দিনে সংসদ থেকে সাধারণ জনসভার অন্যতম বিরোধী মুখ হয়ে ওঠার বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে মহুয়ার মধ্যে, এমনই ভবিষ্যদ্বাণী করেছে ফোবর্স।
ফোবর্সের এই তালিকায় রয়েছেন জেএনইউ ছাত্র সংসদের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট তথা বর্তমান সিপিআই নেতা কানহাইয়া কুমার। লোকসভা ভোটে জয় না পেলেও সুবক্তা কানহাইয়ার দেশব্যাপী জনপ্রিয়তা ফেলে দেওয়ার মতো নয়। ভারতীয় রাজনীতিতে ছাপ রাখতেই পারেন বেগুসরাইয়ের কানহাইয়া, এমনই লেখা হয়েছে ফোবর্সে। ফোবর্সের তৈরি এই কুড়িজন ব্যক্তিত্বের মধ্য রয়েছেন কমেডিয়ান ও রাজনীতি বিশ্লেষক হাসান মিনহাজ, শিল্পপতি আদিত্য মিত্তল, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রাজাপক্ষ, সৌদি আরবের রাজপুত্র মহম্মদ বিন সলমন, হরিয়ানার উপ মুখ্যমন্ত্রী দুষ্যন্ত চৌতলা, ১৬ বছরের পরিবেশ ও সমাজকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ, ফিনল্যান্ডের কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন প্রমুখ।

 

Comments
Loading...