মহিলারা বাইরে বেরোচ্ছেন বলেই #MeToo: মুকেশ খান্না, নারীরা পুরুষের সমকক্ষ ভাবছেন তাই যত গোলমাল, বললেন পর্দার শক্তিমান

মহিলাদের কাজ বাড়ি সামলানো। যবে থেকে তাঁরা বাড়ির বাইরে যাচ্ছেন, মিটুর মতো বিভিন্ন জিনিস শোনা যাচ্ছে। আজ মহিলারা নিজেদের পুরুষের সমকক্ষ ভাবছেন। এটাই আসল সমস্যা।

আমাদের সবার জীবনেই এমন একটা সময় আসে যখন কার্টুনের চরিত্রদের বড্ড কাছের মনে হয়। শক্তিমান তাদের অন্যতম। নারী জাতিকে নিয়ে তাঁর ভাবনা উপরের লাইনগুলো।

মহাভারত ও শক্তিমান খ্যাত অভিনেতা মুকেশ খান্না সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে মহিলাদের নিয়ে নিজের উপলব্ধির কথা জানিয়েছেন। তাতে তিনি বলেছেন, মহিলারা যবে থেকে বাড়ির বাইরে বেরোনো শুরু করেছেন, মিটু আন্দোলন শুরু হয়েছে। আসলে মহিলারা নিজেদের পুরুষের সমান ভাবতে শুরু করেছেন বলে সমস্যাটা হচ্ছে। বলেন শক্তিমান মুকেশ খান্না। তারপর যোগ করেন, আমি তো বাবা মনে করি মেয়েদের বাড়ি সামলানোই কাজ। বাইরের কাজ পুরুষদের। এটা না মানলেই যত গোলমাল।

বর্তমানে উগ্র হিন্দুত্বের সমর্থক একদা শক্তিমানের এহেন মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। তাঁর দিকে ধেয়ে আসতে থাকে একের পর এক আক্রমণ। কেউ প্রশ্ন তোলেন, এ কথা বলার জন্য যে তথ্য প্রমাণ প্রয়োজন তা কি আছে মুকেশ খান্নার কাছে? কীসের উপর ভিত্তি করে তিনি পুরুষ জাতিকে নারীর তুলনায় উত্তম মনে করেন? কিন্তু মুকেশ খান্না নিজের বক্তব্যেই অনড়। আজ যখন কন্যা সন্তানকে প্রাপ্য মর্যাদা ফেরাতে সকলেই অন্তত প্রকাশ্যে সোচ্চার হচ্ছেন, তখন জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা মুকেশ খান্নার এমন লিঙ্গবৈষম্যমূলক বয়ান চমকে ওঠার মতো, বলে জানাচ্ছেন সমালোচকরা।

Comments
Loading...