বহুজাতিক সংস্থার কোনও কর্মী পার্কে নামাজ পড়লে সংশ্লিষ্ট সংস্থার বিরুদ্ধে নেওয়া হবে ব্যবস্থা, নয়ডা পুলিশের নির্দেশিকায় বিতর্ক

নয়ডার সেক্টর ৫৮ এর বেশ কিছু বহুজাতিক সংস্থাকে নয়ডা পুলিশের তরফে পাঠানো একটি নির্দেশিকা ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। জানা গেছে, সম্প্রতি বহুজাতিক সংস্থাগুলিকে পাঠানো এই নির্দেশে নয়ডা পুলিশ জানিয়েছে, নয়ডার পার্ক কোনও ধর্মীয় কার্যকলাপ বা ধর্মাচরণের জন্য ব্যবহার করা যাবে না। নোটিশে শুক্রবারের ধর্মীয় কার্যকলাপের কথা উল্লেখ করেছে পুলিশ।
অভিযোগ উঠছে, শুক্রবার যেহেতু মুসলমানরা নামাজ পড়েন, তাই তাদের উদ্দেশ্যেই জারি করা হয়েছে এই নির্দেশিকা। ইতিমধ্যেই নয়ডার সেক্টর ৫৮ র কম পক্ষে ১২ টি বহুজাতিক সংস্থা এই নোটিশ পেয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, যদি কোনও সংস্থার কর্মী নয়ডা পার্কে নামাজ পড়েন, তাহলে এরপর থেকে তার দায় বর্তাবে ওই সংস্থার উপরই। ব্যবস্থা নেওয়া হবে সংশ্লিষ্ট সংস্থার বিরুদ্ধে। তাই সংস্থাগুলি যাতে তাদের কর্মীদের এই কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য নির্দেশ দেয় সেই কথাই বলা হয়েছে নয়ডা পুলিশের পক্ষ থেকে জারি করা এই নোটিশে।
সূত্রের খবর, পুলিশের এই নোটিশে খুশি নন নয়ডার ওই ইন্ডাস্ট্রিয়াল সেক্টরের বিভিন্ন সংস্থার কর্তৃপক্ষ। তারা ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন। প্রয়োজনে এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার কথাও ভাবছেন তারা।
প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরেই নয়ডা পার্কে সেই এলাকার বিভিন্ন বহুজাতিক সংস্থায় কর্মরত মুসলিম কর্মীরা শুক্রবার নামাজ পড়েন। নির্দিষ্ট কোনও ধর্মকে উদ্দেশ্য করে এই নির্দেশ জারি করা হয়নি বলে বিতর্কের মুখে পড়ে সাফাই দিয়েছে নয়ডা পুলিশ। যদিও সূত্রের খবর, পার্কে এভাবে প্রকাশ্যে নামাজ পড়লে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হতে পারে বলে সম্প্রতি পুলিশে অভিযোগ করেছিল কয়েকটি স্থানীয় হিন্দু সংগঠন। তারপরই বিভিন্ন বহুজাতিক সংস্থাকে এই নোটিশ পাঠায় পুলিশ। হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টার জানিয়েছেন, প্রকাশ্যে এভাবে ধর্মীয় আচরণ পালন উচিত নয় কারও।

Comments
Loading...