বিজেপি আইটি সেলের প্রধানকে জবাব দিতে তৃণমূলের অস্ত্র নুসরত! জেপি নাড্ডার মন্তব্যে ট্যুইট যুদ্ধ অমিত মালব্য-তৃণমূল সাংসদের

করোনা আবহে প্রায় প্রতিদিনই বাংলাকে নিশানা করে একের পর এক ট্যুইট করছেন বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য। রাজ্যের শাসক দলের অভিযোগ, দেশের মানুষের কাছে বাংলাকে অপদস্থ করতেই আইটি সেলকে দিয়ে ফেক নিউজ ছড়ানো হচ্ছে। এবার বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যকে টক্কর দিতে তৃণমূল ভার্চুয়াল দুনিয়ায় নামালো অভিনেতা তথা বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহানকে।

মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের ঘটনা থেকে শুরু করে টিকিয়াপাড়ায় পুলিশের উপর হামলা, পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা থেকে ICMR এর রিপোর্ট নিয়ে যখনই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উপর খড়গহস্ত হয়েছেন বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য, সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যুত্তর দিতে হাজির হচ্ছেন অভিনেত্রী সাংসদ নুসরত।

সম্প্রতি এই ট্যুইট যুদ্ধ চরমে পৌঁছেছে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার একটি বক্তব্যের প্রেক্ষিতে। অমিত মালব্যের ট্যুইটের প্রেক্ষিতে কংগ্রেসের করা এক মামলায় রাজস্থান হাইকোর্টে জে পি নাড্ডা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, দলের আইটি সেলের প্রধানের ট্যুইট তাঁর ব্যক্তিগত মতামত। তার দায়ভার বিজেপি নেবে না। আর একেই অস্ত্র করে বৃহস্পতিবার অমিত মালব্যকে ‘মিস্টার ট্রোল ইন চিফ’ বলে কটাক্ষ করে নুসরত ট্যুইটারে মোক্ষম খোঁচা দেন। তিনি লেখেন, নিজের দলেই যিনি (অমিত মালব্য) অপাংক্তেয়, পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর একের পর অভিযোগের কোনও মূল্য নেই। ট্যুইটে বিজেপি আইটি সেলের প্রধানের প্রতি ‘করুণা হয়’ বলেও জানান তৃণমূল সাংসদ।

বেশ কিছুদিন ধরেই বিজেপি আইটি সেল বনাম নুসরতের ‘লড়াই’ জমে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিছুদিন আগে লকডাউনের মধ্যেই হাওড়ার টিকিয়াপাড়ায় পুলিশের উপর হামলা এবং তারপর পুলিশের শান্তিমিছিলকে ব্যঙ্গ করে ট্যুইট করেন অমিত মালব্য। ট্যুইটে মমতার সরকারকে একহাত নেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান। তারপরই তৃণমূল ময়দানে নামায় অভিনেতা-সাংসদকে। সরাসরি অমিত মালব্যকে নিশানা করে ট্যুইটারে পাল্টা গুজরাতের একটি ভিড়ের ভিডিও পোস্ট করেন।

আবার মুর্শিদাবাদের মেডিক্যাল কলেজ সংক্রান্ত ঘটনায় টুইট যুদ্ধ হয়েছে দুজনের। মেডিক্যাল কলেজ নিয়ে অমিত মালব্যের সমালোচনামূলক টুইটের জবাবে নুসরত বলেছিলেন, আপনার কাজ ঘৃণা ছড়ানোর উদ্দেশ্যে ট্রোল করা ও ভুয়ো খবর ছড়ানো। দয়া করে সেটাই করুন। সরকার ও তার নীতির মতো সিরিয়াস ইস্যু বাকিদের জন্য ছেড়ে দিন।

আবার ৬ মে এক ট্যুইটে বিজেপি আইটি সেলের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সংস্থা PIB মিলে গিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন নুসরত। সেখানে অমিত মালব্যের ট্যুইট উদ্ধৃত করে লেখেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকার যেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৪০ বলে সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছে, সেখানে পিআইবি রিপোর্টে লিখেছে ৯৪০! একইভাবে ICMR এর দেওয়া সংখ্যা নিয়েও অমিত মালব্যকে ট্যুইটে কটাক্ষ করেন নুসরত জাহান।

যদিও বাংলার সরকারকে আক্রমণ করে অমিত মালব্যের ট্যুইট অব্যাহত। শুক্রবার এ রাজ্যের চিকিৎসকদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় মমতা সরকারের ব্যর্থতার অভিযোগ করেছেন তিনি। এখন অপেক্ষা নুসরতের জবাবের।

Comments
Loading...