মহাকাশে সাফল্য নিয়ে ভোটের মুখে প্রধানমন্ত্রীর জাতির উদ্দেশে বার্তা ঘিরে বিতর্ক, একযোগে সমালোচনায় রাহুল-মমতা-ইয়েচুরি

বুধবার, সকাল ১১ টা ২৩। আচমকাই প্রধানমন্ত্রীর ট্যুইট। তাতে লেখা, ‘আমার প্রিয় দেশবাসী, আজ সকাল ১১.৪৫ থেকে বেলা ১২ টার মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিতে আপনাদের মধ্যে আসছি।‘

সঙ্গে সঙ্গে দেশজুড়ে তোলপাড় পড়ে যায়। নোটবন্দির টাটকা স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়, তাহলে কি ফের তেমনই কিছু ঘোষণা করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী? কী বলতে পারেন মোদী, তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে যায়। ট্যুইটে উল্লেখ করা সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর আরও বাড়তে থাকে উত্তেজনা।

ঘড়ির কাঁটা বারোটা পেরিয়ে যাওয়ার পর ক্যামেরার সামনে আসেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, প্রত্যেক ভারতবাসীর কাছে আজ গর্বের দিন। মহাকাশে ভারত এখন চতুর্থ শক্তি। জাতীয় সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে, ভারত মহাকাশ অভিযানেও সমান পারদর্শী, জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ভারতের অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইল মাত্র ৩ মিনিটের মধ্যে কক্ষপথে থাকা বাতিল কৃত্রিম উপগ্রহকে ধ্বংস করেছে। সারা বিশ্বে আমেরিকা, রাশিয়া এবং চিন ছাড়া একমাত্র ভারতের হাতেই মজুত সেই বিশেষ প্রযুক্তি। অপারেশনের নাম ‘মিশন শক্তি’। অত্যন্ত জটিল ও কঠিন এই অপারেশন মাত্র তিন মিনিটে ভারতের বিজ্ঞানীরা শেষ করেছেন বলেও জানান নরেন্দ্র মোদী। তিনি এও জানান, ভারতের উদ্দেশ্য নিজের সামরিক শক্তি দেখানো নয়, বরং উন্নয়নের লক্ষ্যেই ভারতের এই পদক্ষেপ।
লোকসভা নির্বাচনের মুখে মহাকাশ অভিযানে ভারতের নয়া নজির কেন সেই সব বিজ্ঞানীদের বদলে প্রধানমন্ত্রীকে নিজে এসে ঘোষণা করতে হল, তা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বিরোধীদের অভিযোগ, নির্বাচনের মুখে বিজ্ঞানিদের  সাফল্যকে নিজের সাফল্য বলে প্রচার করতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ট্যুইটারে মোদীকে কটাক্ষ করে লেখেন, ‘শুভ বিশ্ব নাটক দিবস!’। খোঁচা দিতে ছাড়েননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রধানমন্ত্রীর দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বার্তার পরই বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানিয়ে একাধিক ট্যুইট করেন মমতা। দেশের বিজ্ঞানী ও গবেষকদের এই সাফল্যে তিনি অত্যন্ত গর্বিত বলে জানান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু মোদীর ঘোষণাকে বড় নাটক বলে কটাক্ষ করেন মমতা। নির্বাচনী আদর্শ আচরণ বিধি ভাঙার জন্য নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হবেন বলেও ট্যুইট করেন তিনি। একই অভিযোগে সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়েছেন। ইয়েচুরির অভিযোগ, দেশের বিজ্ঞানীদের কৃতিত্বকে রাজনৈতিক মোড়কে ভোটের আগে নিজের বলে পরিবেশন করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Comments
Loading...