ইভিএম নিয়ে আপত্তি, ব্যালটে ভোটের দাবিতে নির্বাচন কমিশনে যাবে বিরোধী জোট

শনিবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে কলকাতার ব্রিগেডে দেশের ২৪ টি বিরোধী, আঞ্চলিক দলের বিজেপি বিরোধী ইউনাইটেড ইন্ডিয়া সমাবেশের পর দেশে সুষ্ঠ ও অবাধ নির্বাচনের দাবিতে সরব হলেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ।
এদিন বিকেল চারটে নাগাদ ব্রিগেডের সমাবেশ শেষ হওয়ার পর আলিপুরের সৌজন্য পেক্ষাগৃহে এক চা চক্রে মিলিত হন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির নেতারা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্দ্রবাবু নাইডু, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, অখিলেশ যাদব, অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি, ফারুক আবদুল্লা, সতীশ মিশ্র প্রমুখ।
এদিনের মিটিংয়ে অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচনের পক্ষে সওয়াল করেছেন বিরোধী নেতৃত্ব। ব্রিগেডের মঞ্চেই ইভিএম নিয়ে আপত্তির কথা প্রথম বলেন ফারুক আবদুল্লা। পরে সাংবাদিক বৈঠকেও ইভিএম নিয়ে তাঁদের আপত্তির কথা জানান একাধিক বিরোধী নেতা। কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি বলেন, তাঁরা চান ইভিএম এর বদলে ব্যালট পেপারেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক। কিন্তু যেহেতু লোকসভা ভোট আসন্ন ও হাতে বেশি সময় নেই, তাই ঠিক হয়েছে বিরোধী নেতৃত্বের তরফে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের আশঙ্কার কথা ও অবাধ নির্বাচনের দাবি জানানো হবে। এর জন্য সপার অখিলেশ যাদব, বিএসপির সতীশ মিশ্র, কংগ্রেসের অখিলেশ মনু সিঙ্ঘভি ও আপ সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাঁরা গোটা বিষয় নিয়ে বিরোধী জোটের মধ্যে সমন্বয় সাধন করবেন, কথা বলবেন নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে।
এছাড়াও এদিন চা চক্রের শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন, বিরোধী জোটের আগামী কর্মসূচি, সভা, সমাবেশ নিয়ে খুব শীঘ্রই মিটিং করে সব ঠিক করা হবে। লোকসভা ভোটের আগে সংসদের শেষ অধিবেশনে বিরোধী নেতৃত্ব ফের মিলিত হয়ে যৌথ কর্মসূচি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বলে তিনি ইঙ্গিত দেন।
অখিলেশ যাদব বলেন, দেশের সঙ্গে বেইমানি করেছে বিজেপি, তার জবাব দেওয়ার সময় এসেছে। জয়ের পর এই ব্রিগেডেই বিরোধীদের বিজয় সমাবেশ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
বৈঠক শেষে অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু বলেন, দেশভাগের রাজনীতি চলছে, দেশকে বাঁচাতে হবে। জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা বলেন, দেশ বিপদের সম্মুখীন, দেশে হিটলারের উত্থান যাতে না হয় তা দেখতে হবে। অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন যাতে হয় তা নিশ্চিত করতে কমিশনকে তিনি অনুরোধ করেছেন।

Comments
Loading...