করোনায় অনাথ ৩ হাজারের বেশি, বাবা কিংবা মাকে হারিয়েছে ২৬ হাজারের বেশি শিশু, সুপ্রিম কোর্টে জানাল NCPCR

গত বছর এপ্রিলের ১ তারিখ থেকে চলতি বছরের জুনের মধ্যে করোনায় অনাথ হয়েছে ৩ হাজারের বেশি শিশু। ২৬ হাজার শিশু হারিয়েছে মা অথবা বাবাকে। সুপ্রিম কোর্টে জানাল জাতীয় শিশু অধিকার কমিশন বা NCPCR এর।

শীর্ষ আদালতকে জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন জানিয়েছে, অনাথ হয়েছে মোট ৩,৬২১ টি শিশু। মা-বাবার মৃত্যুতে পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে ২৭৪ টি শিশু। ২৬১৭৬ জন করোনায় হারিয়েছে মা অথবা বাবাকে। অর্থাৎ মোট ৩০,০৭১ টি শিশুদের মধ্যে ১৫ হাজার ৬২০ জন ছেলে আর ১৪ হাজার ৪৪৭ জন মেয়ে এবং ৪ জন ট্রান্সজেন্ডার।

কমিশন আদালতকে জানিয়েছে, এই শিশুদের অতি দ্রুত বিশেষ যত্ন ও সুরক্ষার প্রয়োজন।

কমিশনের তালিকা বলছে, ১১ হাজার ৮১৫ জন শিশুর বয়স ৮ থেকে ১৩ এর মধ্যে। আর ৫ হাজার ১০৭ জনের বয়স ৫ থেকে ৭ এর মধ্যে। জাতীয় শিশু অধিকার কমিশন বা NCPCR এর পোর্টাল বাল স্বরাজে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে।

শিশু সুরক্ষা কমিশন জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রে ৭,০৮৪ টি শিশুর বিশেষ সুরক্ষা এবং যত্নের প্ৰয়োজন। এরপর রয়েছে উত্তরপ্রদেশের নাম। সেখানে ৩ হাজার ১৭২ জন শিশু ক্ষতিগ্রস্ত। আর রাজস্থানে ক্ষতিগ্রস্ত ২ হাজার ৪৮২ জন শিশু। হরিয়ানা, মধ্যপ্রদেশ, কেরলে কোভিড ক্ষতিগ্রস্থ শিশুর সংখ্যা ২ হাজারের বেশী।

সুপ্রিম কোর্ট কয়েকদিন আগে দেশে কোভিডের কারণে অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের দায়িত্ব নেওয়া নিয়ে নির্দেশ দিয়েছিল। আদালত কমিশনের কাছে রাজ্যে অনাথ শিশুদের তালিকা চায়। সোমবার সুপ্রিম কোর্টে জাতীয় শিশু সুরক্ষা ও অধিকার কমিশন জানায় অন্য রাজ্যগুলি সঠিক তথ্য দিলেও পশ্চিমবঙ্গ আর দিল্লি অনাথ শিশুদের কোনও তথ্য দিচ্ছে না। কোর্টের প্ৰশ্ন অন্য রাজ্যগুলি এই বিষয়ে বুঝতে পারলে পশ্চিমবঙ্গ কেন বুঝতে পারবে না?

করোনায় যেসব শিশু মা বাবাকে হারিয়ে অনাথ হয়েছে, তাদের বড় করার দায়িত্ব নেবে কেন্দ্র। পিএম কেয়ার্স তহবিল থেকে তাদের লেখাপড়া, ভরণপোষণের দায়িত্ব নেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছে কেন্দ্র।

Comments
Loading...