বাড়িতে আগুন লাগা সত্ত্বেও গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন বাড়ির মালিক! শেষপর্যন্ত প্রাণে বাঁচলো পোষা টিয়া পাখি!

দাউদাউ করে জ্বলছে আগুন। কিন্তু ঘুম সবার আগে। তাই বাড়ির মালিক ছিলেন ঘুমে আচ্ছন্ন। এমতাবস্থায় আর কিছুক্ষণ দেরি হলেই তিনি পুড়ে মারা যেতেন। কিন্তু ঘুম তার ভাঙেনি। শেষে নিজের মালিক কে প্রাণে বাঁচালো পোষা বুদ্ধিমান টিয়া।

শুনে অবাক হচ্ছেন তো? কিন্তু এমনটাই ঘটেছে। জানা গিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে বসবাসারী ওই ব্যাক্তির নাম অ্যান্টন নেগুয়েন। তার পোষা টিয়া পাখিটির নাম এরিক। আগুন লাগতেই সে তার মালিকের নাম ধরে ডাকতে শুরু করে।

স্থানীয় দমকল আধিকারিকরা জানিয়েছেন ‘ আগুন লেগেছে বুঝতে পেরেই ‘অ্যান্টন’, ‘অ্যান্টন’ বলে তারস্বরে নিজের মালিককে ডাকতে শুরু করে টিয়া পাখিটি৷’ এদিকে অ্যান্টন নামে ওই ব্যক্তির কথায়, ‘ঘুমের মধ্যেই বেশ জোরে একটা শব্দ শুনি, তারপর দেখি এরিক খুব জোরে চিৎকার করছে৷ ঘুম থেকে উঠে আসতেই পোড়া গন্ধ পাই৷ পিছনের দরজা খুলে দেখি বাড়িতে আগুন লেগেছে৷ সঙ্গে সঙ্গে এরিককে নিয়ে বাড়ির বাইরে চলে আসি আমি৷’ এই ঘটনায় চারিদিকে সকলের কাছে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে টিয়াটি।

প্রসঙ্গত ,বাড়িটিতে স্মোক ডিটেক্টর লাগানো ছিল। কিন্তু সেই অ্যালার্ম বাজার পূর্বেই এরিক তারস্বরে অ্যানটন এর নামে চিৎকার করতে শুরু করে। আর একটু দেরি হলেই বড়োসড়ো ক্ষতি হতে পারতো বাড়ির মালিক সহ টিয়া পাখিটিরও। তবে আগুনে ওই বাড়িটির যথেষ্ট ক্ষতি হলেও অন্যান্য পাশের বাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়তে পারেনি দমকল এসে পড়ায়। তবে ঠিক কি কারণে কোথা থেকে এই আগুনের উৎস তা এখনো ধরতে পারা যায়নি। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Comments
Loading...