পিকে ব্যানার্জির সঙ্গে দেখা করলেন পিয়ারলেস কোচ জহর দাস

মুছে গেল ৬১ বছরের ব্যবধান, দেখা হল ইতিহাস এবং বর্তমানের। ১৯৫৮, শেষবারের মতো কলকাতা লিগ জিতেছিল তিন প্রধানের বাইরের কোন দল। সেবার পি কে ব্যানার্জির দুরন্ত পারফরম্যান্সে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইস্টার্ন রেল। তারপর ছয় দশকের অপেক্ষা। কলকাতা লিগ বারবার থেকে গেছে কলকাতার তিন প্রধানের ট্রফিঘরে। এবার সেই ট্রেন্ড পাল্টানোর ঠিক সামনে দাঁড়িয়ে পিয়ারলেস। ইস্টবেঙ্গল কাস্টমসের রিপ্লে ম্যাচে লাল হলুদ যদি সাত গোলের কম ব্যবধানে জেতে তাহলেই চ্যাম্পিয়ন পিয়ারলেস। সেই ম্যাচ না হওয়ায় আপাতত থমকে কলকাতা লিগের চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা। তবে পিয়ারলেস যে সফল, তা মেনে নিয়েছে গোটা ময়দান। তাই বলাই যায়, পিকে ব্যানার্জির সেই ইতিহাস প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছে জহর দাসের পিয়ারলেস। মঙ্গলবার দুপুরে পিকে ব্যানার্জির সল্টলেকের বাসভবনে গিয়ে, তাঁর সঙ্গে দেখা করে এলেন পিয়ারলেস কোচ জহর দাস। বেশ কিছুক্ষণ কথা হল দুজনের মধ্যে। পিয়ারলেসকে নিয়ে সাফল্য আনার জন্য জহর দাসকে অভিনন্দন জানান পিকে।
পিয়ারলেস কোচ বলেন, ‘আমি ওনার কোচিংয়ে খেলেছি। আমি বুঝতে চেষ্টা করছিলাম ওনার সেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মুহূর্ত আর এখনের ভালো লাগা এক কিনা। উনি আমাদের সাফল্যে খুব খুশি। এখন উনি খুব অসুস্থ। আরো কয়েক বছর আগে এলে, হয়তো আরও কথা হতো।’ অসুস্থ পিকে ব্যানার্জি বলেন, ‘আমার খুব ভালো লাগছে। ৫৮ এর কথা মনে পড়ছে। আমাদের সময় সব বাঙালি ফুটবলার ছিল। এখন আবার বাঙালি ফুটবলাররা জয় এনে দিয়েছে।’

Comments
Loading...