রথযাত্রার পাশাপাশি ডিসেম্বরে রাজ্যে মোদীর একাধিক সভা, গুরুত্ব দিচ্ছে না তৃণমূল

লোকসভা ভোট যত এগোচ্ছে, ততই বাংলায় সুর চড়াচ্ছে বিজেপি। ডিসেম্বরে এরাজ্যে রথযাত্রা কর্মসূচির পাশাপাশি খোদ প্রধানমন্ত্রী বেশ কয়েকটি সভা করতে চলেছেন বলে বিজেপি সূত্রে খবর।
বছর ঘুরলেই লোকসভা ভোট। একদিকে রাজ্যে নিজেদের শক্তি আরও বাড়িয়ে দিল্লিকেই পাখির চোখ করছে তৃণমূল কংগ্রেস। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানুইয়ারি মাসেই ডাক দিয়েছেন বিজেপি বিরোধী দলগুলির ব্রিগেড সমাবেশ। অন্যদিকে, পঞ্চায়েত ভোটে রাজ্যে প্রধান বিরোধী দল হিসেবে উঠে আসা বিজেপির এবার টার্গেট লোকসভা ভোট। পশ্চিবঙ্গ যে বিজেপির কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তা কয়েকমাস আগে মোদী-অমিত শাহের এরাজ্যে সফর ঘিরে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি, ডিসেম্বরে রাজ্যে রথযাত্রা বের করার ঘোষণা করেছে বিজেপি। সেই রথযাত্রা চলাকালীন রাজ্যের অন্তত চার জায়গায় প্রধানমন্ত্রী সভা করবেন বলে জানা যাচ্ছে। রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের দাবি, প্রধানমন্ত্রী নিজে এরাজ্যে সভা করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন।
রাজ্যের প্রধান চারটি জেলা শহরে মোদী এই সভা করবেন বলে জানান দিলীপ ঘোষ। তবে সভাস্থল এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে জানা গিয়েছে। দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, রথযাত্রা উপলক্ষ্যে রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রেই একটি করে কেন্দ্রীয় জনসভা করার পরিকল্পনা আছে তাদের। সেই সভাগুলিতে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথসহ বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের আসার কথা। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ কোচবিহার থেকে রথযাত্রা কর্মসূচির সূচনা করা ছাড়াও দু-একটি জনসভাতে থাকবেন। আর এই কর্মসূচির কথা জেনে প্রধানমন্ত্রী নিজেও কয়েকটি সভা করার জন্য ইচ্ছা প্রকাশ করেন। বিজেপির এই কর্মসূচি যে লোকসভা ভোটকেন্দ্রিক, তা এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে স্পষ্ট।
তবে, তৃণমূল নেতৃত্ব বিজেপির রথযাত্রা বা প্রধানমন্ত্রীর সভা করার ঘোষণা, কোনওটাকেই তেমন আমল দিচ্ছে না। তৃণমূল নেতৃত্বের মতে, এরাজ্যের মানুষ বিজেপির ধর্মের রাজনীতির জালে পা দেবেন না। ধর্মের নামে সুড়সুড়ি দিয়ে রাজনীতির চেষ্টা বৃথা যাবে বিজেপির। বাংলার মানুষ মমতা সরকারের ওপরেই আস্থা রাখবেন বলে নিশ্চিত তৃণমূল নেতৃত্ব।
আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকা জামবনির সভা থেকে সোমবার বিজেপিকে বিঁধেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ, সিবিআই থেকে আরবিআই, বিজেপি আমলে কলঙ্কিত হয়েছে সবাই। কেন্দ্রের আরও দুর্নীতি আস্তে আস্তে প্রকাশ্যে আসবে বলে কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রীর। তিনি বলেন, বিজেপি ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতি করে ক্ষমতায় আসতে চাইছে। তারা রামকে বিক্রি করে নোংরা রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ করেন মমতা। তাঁর কটাক্ষ, আদতে রাম নয়, রাবণের পুজো করে বিজেপি।

Comments
Loading...