প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল, শরীরের বেশ কিছু অঙ্গ চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার এই খবর জানালেন প্রণব পুত্র অভিজিৎ মুখার্জি।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর আর আর হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, এখনও পুরোপুরি সংকটমুক্ত নন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তাঁকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই রাখা হয়েছে। তবে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ কিছু অঙ্গ কাজ করছে।

প্রণববাবু মারা গিয়েছেন, বুধবার রাত থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন গুজব ছড়িয়ে যায়। বিখ্যাত সাংবাদিক রাজদীপ সারদেশাইও ট্যুইট করে প্রণব মুখার্জিকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেলেন।

পরের ট্যুইটে অবশ্য ক্ষমা চেয়ে তিনি জানান, ভুয়ো খবরের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এই কাজ করে ফেলেছিলেন। এই ঘটনার পর ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তীব্র সমালোচনা করে ট্যুইট করেন প্রণব পুত্র অভিজিৎ ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার জঙ্গিপুরের প্রাক্তন সাংসদ এক ট্যুইটে লেখেন, লজ্জায় আমার মাথা হেঁট হয়ে যায় যখন দেখি কীভাবে দেশের কর্পোরেট মিডিয়া হাউস, কিছু সাংবাদিক এবং সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা শুধুমাত্র পরিচিতির লোভে ইচ্ছাকৃতভাবে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে যাচ্ছেন। চটজলদি একজন জীবিত ব্যক্তিকে মৃত বলে দেওয়া এত সস্তা! এরপরই হ্যাশট্যাগ দিয়ে অভিজিৎ ব্যানার্জি লেখেন ফেক নিউজ মিডিয়া।

রবিবার রাতে তাঁর দিল্লির বাসভবনে পড়ে যান প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। মাথায় আঘাত পান। সোমবার সকালে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করে জমে থাকা রক্ত বের করে ফেলা হয়। হাসপাতাল সুত্রে জানানো হয় প্রণববাবুর অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। কিন্তু তারপর অস্ত্রোপচারের জায়গা থেকে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। মস্তিষ্কের অন্যান্য অংশেও রক্তক্ষরণ হয়। তাছাড়া জানা যায়, ৮৪ বছরের প্রণববাবু করোনাভাইরাস সংক্রমিত। রয়েছে হার্টের সমস্যাও। যার জেরে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। অস্ত্রোপচারের পর থেকে তিনি ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই আছেন।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Delhi Riot Chargesheet
Firms Can Hire And Fire