কাশ্মীর নিয়ে ভারতের অবস্থানের পাশে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। পাকিস্তানের উদ্দেশে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পরমানু হুমকিকেও কার্যত সমর্থন জানিয়েছেন। এই অভিযোগ তুলে এবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের শান্তিদূতের পদ থেকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার অপসারণ দাবি করল পাকিস্তান।
পাকিস্তানের মানবাধিকার মন্ত্রী শিরীন মাজারি রাষ্ট্রসঙ্ঘকে দেওয়া চিঠিতে লিখেছেন, ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়া প্রকাশ্যে কাশ্মীর নিয়ে ভারত সরকারের অবস্থানের পৃষ্ঠপোষকতা করছেন।’ পাক মন্ত্রীর আরও অভিযোগ, ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে পরমানু যুদ্ধের পক্ষেও সওয়াল করছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, যা রাষ্ট্রসঙ্ঘের শান্তির দূতের আদর্শ বিরোধী। তাই দ্রুত প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের শান্তির দূতের পদ থেকে সরানোর সওয়াল করেছেন পাক মন্ত্রী। তাঁকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের পদ থেকে না সরালে এই পদের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হবে বলে অভিযোগ পাক মানবাধিকার মন্ত্রীর।
কিছুদিন আগে আমেরিকায় এক পাকিস্তানি মহিলার বিক্ষোভের মুখে পড়েন প্রিয়াঙ্কা। তিনি পাকিস্তান ভারতের মধ্যে পরমানু যুদ্ধকে সমর্থন করেন এমন অভিযোগ করে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে ‘ভণ্ড’ বলে মন্তব্য করেন ওই পাক তরুণী।
বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের ঘটনায় ভারতীয় সেনাবাহিনীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে গত ২৬ শে সেপ্টেম্বর ট্যুইট করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। তারপর থেকেই পাকিস্তানিদের কোপে পড়েছেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিংয়ের শিকার হচ্ছেন মার্কিন টিভি সিরিজ কোয়ান্টিকোর তারকা অভিনেতা।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us