রাফাল ইস্যুতে ফের মোদীকে নিশানা রাহুলের। কৃষি ঋণের কথা বলে কংগ্রেস বোকা বানাচ্ছে দেশের মানুষকে, পালটা প্রধানমন্ত্রী

লোকসভায় যখন মোদীর অনুপস্থিতির প্রসঙ্গ তুলে রাহুল গান্ধী কটাক্ষ করছেন, প্রশ্ন এড়াতে সংসদে না এসে পঞ্জাবে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, তখন সেখান থেকেই কংগ্রেসকে পালটা আক্রমণ করলেন নরেন্দ্র মোদী। যদিও বুধবার সারাদিন রাফাল ইস্যুতে যেভাবে উত্তাল হয়েছে সংসদ কিংবা বিরোধীরা একযোগে এই ইস্যুতে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মুখ খুললেন না।
বৃহস্পতিবার পঞ্জাবের সভা থেকে কংগ্রেসকে পালটা আক্রমণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গরিবি হটাও’ এর পর কৃষক ঋণ মুকুব করার কথা বলে আবার দেশের মানুষকে বোকা বানানোর চেষ্টা করছে কংগ্রেস।
হিন্দি বলয়ের তিন রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর কৃষক ঋণ মুকুব করেছে কংগ্রেস সরকার। পঞ্জাবের গুরুদাশপুর জেলায় সভা থেকে মোদী এদিন বলেন, ঋণ মুকুবের নাম করে আবার দেশকে ঠকানোর অভিপ্রায় রয়েছে কংগ্রেসের।
অন্যদিকে, এদিনও ফের রাফাল ইস্যু তুলে কেন্দ্রীয় সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছে কংগ্রেসসহ বিরোধীরা। রাফাল প্রসঙ্গে প্রশ্ন থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রী সংসদে আসছেন না বলে কটাক্ষ করে রাহুল বলেন, মোদী পঞ্জাবে লাভলি বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়েছেন। কংগ্রেস সভাপতি ট্যুইটারে লেখেন, রাফাল নিয়ে বিরোধীদের প্রশ্ন এড়াতে লাভলি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের বক্তব্য শোনাতে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে রাহুলের আবেদন, তাঁরা যেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে রাফাল প্রসঙ্গ নিয়ে প্রশ্ন করেন। রাহুল ৪ টি প্রশ্ন করতে বলেছেন তাঁদের। এক, কেন ১২৬ টি যুদ্ধ বিমানের জায়গায় মাত্র ৩৬ টি কেনা হল? দুই, প্রত্যেক বিমানের দাম ৫৬০ কোটি টাকা হওয়ার পরে ১৬০০ কোটি টাকা কেন খরচ হল এবং চার নম্বর, কেন আম্বানীর রিলায়েন্সকে বরাত দেওয়া হয়েছিল যুদ্ধ বিমান তৈরির?
রাহুল অসাবধানতাবশত ৩ নম্বর প্রশ্নটি লিখতে ভুলে যান। যা নিয়ে বিজেপি নেতারা ট্যুইটারে পালটা খোঁচা দেন, প্রশ্ন করা ছেড়ে রাহুলের উচিত অঙ্ক করতে শেখা। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি রাহুলকে আক্রমণ করে বলেন, তিনি বারবার দেশকে মিথ্যে বোঝাতে চাইছেন। রাফাল প্রসঙ্গে কংগ্রেসের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জেটলির মন্তব্য, কংগ্রেসের মতো পুরনো একটি দল চালাচ্ছেন যে ভদ্রলোক, তাঁর জ্ঞানই নেই কমব্যাট এয়ারক্র্যাফট কী তা নিয়ে।

Comments
Loading...