টিআরএস বিজেপির বি টিম, তেলেঙ্গানায় ভোট প্রচারে গিয়ে মোদীকে জবাব রাহুলের

মঙ্গলবার তেলেঙ্গানায় বিধানসভা ভোটের প্রচারে গিয়ে তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতিকে কংগ্রেসের সহযোগী বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার তার পাল্টা জবাব দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তেলেঙ্গানায় ভোটের প্রচারে গিয়ে রাহুল বলেন, আসলে টিআরএস হল বিজেপির বি টিম। তাই টিআরএসের মুখে বিজেপি নিয়ে কিছু শোনা যায় না।
রাহুলের অভিযোগ, কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে যেমন ব্যর্থ বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার, তেলেঙ্গানায় একইভাবে ব্যর্থ টিআরএস। এবিষয়ে টিআরএস ঠিক যেন বিজেপিকে নকল করছে। এদিন সরাসরি টিআরএস প্রধান তথা তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাও এর প্রসঙ্গ তুলে বিজেপি, টিআরএসকে একযোগে বিঁধেছেন রাহুল। রাহুলের দাবি, এখন কেন্দ্র পিছু হঠলেও এক সময় কেন্দ্রের প্রস্তাবিত কৃষক স্বার্থ বিরোধী বিল নিয়ে কংগ্রেস যখনই বিরোধিতা করতো, টিআরএস বিজেপিকে সমর্থন করেছে। টিআরএসকে তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সংঘ পরিবার বলে দাবি করে জনসভায় উপস্থিত জনতার কাছে রাহুল প্রশ্ন করেন, আপনাদের মুখ্যমন্ত্রীকে কোনও দিন নরেন্দ্র মোদীর বিরোধিতা করতে শুনেছেন? তাঁর প্রশ্ন, টিআরএস কেন রাফাল দুর্নীতি ইস্যুতে চুপ? এই বলে টিআরএসকে বিজেপির বি টিম বলেন এদিন রাহুল।
আগের দিন তেলেঙ্গানায় ভোট প্রচারে গিয়ে টিআরএসকে কংগ্রেসের সহযোগী বলেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। তাঁর দাবি, কংগ্রেস আর টিআরএস আসলে লোক দেখাতে বন্ধুত্বপূর্ণ লড়াই করছে, কিন্তু আসলে তারা একদিকে। সনিয়া গান্ধীর প্রসঙ্গ তুলে মোদী বলেছিলেন, যেহেতু ইউপিএ জমানায় মন্ত্রী ছিলেন কেসিআর, তাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়েও ম্যাডামের অঙ্গুলি হেলনে চলেছেন তিনি, ধ্বংস করেছেন এই নতুন রাজ্যকে।
উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে অন্ধ্র প্রদেশ থেকে আলাদা হয়ে পৃথক রাজ্য হিসাবে আত্মপ্রকাশ করার পর এই প্রথম বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে তেলেঙ্গানায়। আগামী ৭ ডিসেম্বর এখানে নির্বাচন হওয়ার কথা। লড়াই মূলত ত্রিমূখী। বিজেপি, কংগ্রেস- টিডিপি জোট ও টিআরএস এবারের নির্বাচনী লড়াইয়ে মুখোমুখি।

Comments
Loading...