নতুন বছরের শুরুই হতে পারে বৃষ্টি দিয়ে, বাড়বে তাপমাত্রা, জানাচ্ছে আবহাওয়া অফিস

রাজ্যে নতুন বছরের সূচনাই হতে পারে বজ্রপাত ও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির মধ্য দিয়ে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, বছরের প্রথম দিনেই হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ২ কিংবা ৩ জানুয়ারি বজ্রপাত সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে।
মঙ্গলবার কলকাতার তাপমাত্রা ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেড়েছে। এদিন শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২ ডিগ্রি এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে রয়েছে। তবে ১ জানুয়ারি একধাক্কায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আরও ২ ডিগ্রি বাড়বে বলে হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস। ২ জানুয়ারি থেকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি ও একইসঙ্গে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে মেঘলা আকাশ ও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। সেই সঙ্গে কনকনে ঠান্ডাও দু’দিনের মধ্যে অনেকটাই কমে যাবে।
পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট সরে যেতেই জেলাগুলির অধিকাংশেই হাড়ে কাঁপন ধরিয়েছে শীত। শৈল শহর দার্জিলিঙে বরফ পড়েছে। মঙ্গলবার দার্জিলিঙের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জলপাইগুড়ির তাপমাত্রা অবশ্য সোমবারের তুলনায় প্রায় ১ ডিগ্রি বেড়েছে। এদিকে কনকনে হাওয়ার নাকাল হওয়া কলকাতা ও শহরতলিতে এদিন শীতভাব কিছুটা হলেও কমেছে। কলকাতায় সোমবার সামান্য তাপমাত্রা বাড়লেও, তা কিন্তু স্বাভাবিকের তুলনায় একটু কমই ছিল। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, একদিনের মধ্যে রাতের তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রিতে পৌঁছতে পারে। ফলে লেপ মুড়ি দিয়ে কলকাতাবাসীর শীত উপভোগে খানিকটা ছেদ পড়তে পারে। অবশ্য শীতের অনুভূতি একেবারে ফিকে হয়ে যাবে, এমন সম্ভাবনা নেই বলেও জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

Comments
Loading...