রাকেশ আস্থানার ঘুষ নেওয়ার মামলায় মূল অভিযোগকারী সতীশ সানাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, আদালতে বলল সিবিআই

সিবিআই-এর অন্দরে ঘুষকাণ্ডকে কেন্দ্র করে যে বিতর্কের সূত্রপাত, যার জেরে সংস্থার প্রধান অলোক ভার্মা এবং স্পেশাল ডিরেক্টর রাকেশ আস্থানাকে ছুটিতে পাঠিয়েছে কেন্দ্র, সেই মামলায় চাঞ্চল্যকর মোড়।
রাকেশ আস্থানার বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগকারী হায়দরাবাদের ব্যবসায়ী সতীশ সানার কোনও খোঁজ মিলছে না বলে দিল্লির বিশেষ আদালতে জানাল সিবিআই। বুধবার দিল্লির স্পেশাল সিবিআই আদালতে এই ঘটনার তদন্তকারী সতীশ দাগার জানান, সমন পাঠানো সত্বেও হাজিরা দিতে আসেননি সানা, এমনকী মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করাও সম্ভব হচ্ছে না। তাই এর আগে তদন্ত চলাকালীন তাঁকে জেরা করে যে তথ্য পাওয়া গিয়েছিল, তার বাইরে আর নতুন কোনও তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। প্রসঙ্গত, উত্তর প্রদেশের মাংস ব্যবসায়ী মইন কুরেশি সিবিআই-এর হাত থেকে বাঁচতে এই সতীশ সানার মাধ্যমেই রাকেশ আস্থানাকে ২ কোটি টাকা দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ।
রাকেশ আস্থানার বিরুদ্ধে এই ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠায় তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন তৎকালীন সিবিআই প্রধান অলোক ভার্মা। আস্থানার বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের করা হয়, গ্রেফতার করা হয় তাঁর ঘনিষ্ঠ আর এক সিবিআই অফিসার দেবেন্দ্র কুমারকে।
আস্থানার বিরুদ্ধে তদন্ত চালাচ্ছিলেন সিবিআই অফিসার এ কে বাসসি। কিন্তু, সম্প্রতি বিতর্কের জেরে কেন্দ্র অলোক ভার্মা ও রাকেশ আস্থানাকে ছুটিতে পাঠিয়ে দেয় কেন্দ্র। অন্তর্বর্তীকালীন সিবিআই প্রধান হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পরই এম নাগেশ্বর রাও স্পেশাল ডিরকেটর রাকেশ আস্থানার ঘুষকাণ্ডের তদন্তকারী অফিসার বাসসিকে আন্দামানে বদলি করে দেন।
বাসসির জায়গায় এই তদন্তের দায়িত্ব নেন সতীশ দাগার। যদিও ইতিমধ্যেই এই বদলির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছেন এ কে বাসসি। আদালতকে তিনি জানিয়েছেন, আস্থানার বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ তাঁর হাতে রয়েছে। দু’দিন আগে, আদালতে নিজের নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন করেছিলেন সতীশ সানা। এবার রাকেশ আস্থানা মামলার নতুন তদন্তকারী অফিসার আদালতে জানালেন, সতীশ সানাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।
পাশাপাশি বুধবার সিবিআই ধৃত অফিসার দেবেন্দ্র কুমারের জামিনের বিরোধিতা করেনি আদালতে।

Comments
Loading...