রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সঙ্গে কি কেন্দ্রের মত বিরোধ? স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল আরবিআইয়ের

গত শুক্রবারই রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ডেপুটি গভর্নর ভিরল আচারিয়া সওয়াল করেছিলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আরও স্বাধীনতার পক্ষে। এক অনুষ্ঠানে সেদিন তিনি বলেছিলেন, আরবিআই প্রয়োজনীয় স্বাধীনতা না পেলে বা তার স্বাধীনতায় সরকার হস্তক্ষেপ করলে তার কুপ্রভাব পড়বে দেশের অর্থনীতিতে। সম্ভাব্য অচলাবস্থা তৈরির ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি।
আচারিয়ার এই মন্তব্যের পরই অনেকে বলেছিলেন, কেন্দ্র যে আরবিআইকে যথেষ্ট স্বাধীনতা দিচ্ছে না, আরবিআইয়ের সঙ্গে কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের মত পার্থক্য দেখা যাচ্ছে, বকলমে সেটাই ইঙ্গিত করেছিলেন তিনি। পাশাপাশি সেদিন নিজের বক্তব্যে এই বিষয়টি তুলে ধরার পরামর্শ দেওয়ার জন্য সেদিন তিনি আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেলকে ধন্যবাদও জানিয়েছিলেন।
সূত্রের খবর, প্রকাশ্যে আরবিআইয়ের তরফে এই মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি প্রধানমন্ত্রীর দফতর। তাদের মতে, এর ফলে বিনিয়োগকারীদের কাছে ভুল বার্তা যেতে পারে। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার ফিনান্সিয়াল স্টেবিলিটি বডির মিটিংয়ে মুখোমুখি মিলিত হন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর। সংবাদসংস্থার দাবি, অনাদায়ী ঋণ বা ব্যাড লোন দেওয়া নিয়ে এদিন আরবিআইয়ের ভূমিকার সমালোচনা করেছেন জেটলি। বৈঠকে আরবিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, এই মুহূর্তে দেশের ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থায় কোনো লিক্যুইডিটি ক্রাঞ্চ নেই। অনাদায়ী ঋণ পরিস্থিতি যেন আরও খারাপ না হয়, ব্যাঙ্কের অনুৎপাদক সম্পত্তি বৃদ্ধি লাগামছাড়া না হয়, তা দেখার জন্য কেন্দ্রের তরফে বৈঠকে আরবিআইকে অনুরোধ করা হয়েছে।

Comments
Loading...