সাবরিমালায় বিক্ষোভ প্রদর্শনের জের, বদলি করা হল বিএসএনএল কর্মী রেহানা ফতিমাকে

সাবরিমালা মন্দিরে প্রবেশের চেষ্টা করার অভিযোগে কেরলের সমাজকর্মী তথা রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থা বিএসএনএলের কর্মচারী রেহানা ফতিমাকে অন্যত্র বদলি করে দিলো বিএসএনএল কর্তৃপক্ষ। টেলিকম টেকনিশিয়ন রেহানা এতদিন কোচির বোট জেটি বিএসএনএল ব্রাঞ্চে কাস্টমার রিলেশন পদে কর্মরত ছিলেন। জানা গেছে, মঙ্গলবার তাঁকে পালারিভট্টম-এ বিএসএনএল দফতরে বদলি করা হয়েছে। তাঁকে এমন পদে বদলি করা হয়েছে, যেখানে তাঁর সঙ্গে গ্রাহকদের সরাসরি কথোপকথনের সুযোগ নেই।
সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর গত ১৮ অক্টোবর সাবরিমালা মন্দির খোলার পর যেকজন মহিলা আন্দোলনকারী মন্দিরে দফায় দফায় প্রবেশের চেষ্টা করেছিলেন তাঁদের মধ্যে রেহানা ফতিমা ছিলেন অন্যতম। ফতিমাকে তাঁর পদ থেকে সরানোর দাবিতে মঙ্গলবারই বিএসএনএল দফতরের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে সাবরিমালা কর্ম সমিতি। এরপরই রেহানাকে সরিয়ে দেওয়ার খবর সামনে আসে। হিন্দু ধর্ম সংগঠনের পাশাপাশি রেহানার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে মুসলিম সংগঠনগুলিও। তাদের দাবি, হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত দিয়ে ভালো কাজ করেননি রেহানা। তাঁকে মুসলিম সমাজ থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। রেহানার পালটা অভিযোগ, সাবরিমালায় প্রবেশ করতে চাওয়ায় তাঁকে নিগ্রহ করে মন্দিরের লোকজন, এমনকী তাঁর বাড়িতেও হামলা চালানো হয়।
তবে এই প্রথম নয়, এর আগে ২০১৪ সালেও কেরলে ‘কিস অফ লাভ মুভমেন্ট’এও অংশ নেন তিনি। দুই সন্তানের মা রেহানা সম্প্রতি, মহিলাদের নিয়ে এক প্রফেসরের কুরুচিকর মন্তব্যের বিরোধিতায় নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জানিয়েও সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছিলেন।

Comments
Loading...