চিনের প্রাচীরের রক্ষণাবেক্ষণে ড্রোনের সাহায্য

দ্য গ্রেট ওয়াল অফ চায়না। বিশ্বের সপ্তম আশ্চর্যের একটি, চিনের এই ১৩ হাজার মাইল দীর্ঘ প্রাচীরটির রক্ষণাবেক্ষণে এবার ড্রোনের সাহায্য নিতে চলেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। চিনের উত্তর পশ্চিম প্রান্ত থেকে পূর্বে কোরিয়ার সীমান্ত পর্যন্ত প্রায় ১৩ হাজার মাইল লম্বা এই প্রাচীর চিনের ১৫টি প্রদেশের মধ্যে দিয়ে গেছে। দু’হাজার বছরেরও পূর্বে নির্মিত এই স্থাপত্য কীর্তিতে প্রাকৃতিক নিয়মেই ক্ষয় ধরেছে। প্রাচীরের বহু জায়গা ভেঙ্গে গেছে। কিন্তু পার্বত্য বিপদ সংকূল বহু জায়গার উপর দিয়ে প্রাচীরটি যাওয়ায়, সবসময় ঐতিহাসিক এই স্থাপত্যটিতে নজরদারি সম্ভব হয়না।

এই সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এসেছে তথ্য-প্রযুক্তি সংস্থা ইনটেল। ইনটেলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে, দ্য চায়না ফাউন্ডেশন ফর কালচারাল হেরিটেজ কনসারভেশন পরিকল্পনা করেছে এবার থেকে ড্রোন এর মাধ্যমে নজরদারি চালানো হবে চিনের প্রাচীরে। এর ফলে একদিকে যেমন জানা যাবে, কোথায় কোথায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে প্রাচীরটি। তেমনই থ্রি ডি স্ক্যান পদ্ধতির মাধ্যমে তোলা ছবি বিশ্লেষণ করে জানা যাবে ঠিক কতটা ক্ষতি হয়েছে প্রাচীরের বিভিন্ন অংশে এবং সেই অংশের মেরামতিতে কী কী করা প্রয়োজন।

Comments
Loading...