মহম্মদ সামির দাদা হাসিবকে ১৮ এপ্রিল লালবাজারে তলব। এরপর সামিকেও জেরার সিদ্ধান্ত কলকাতা পুলিশের।

জাতীয় দলের পেসার মহম্মদ সামির দাদা হাসিব আহমেদকে লালবাজারে তলব করল কলকাতা পুলিশ। আগামী ১৮ এপ্রিল, বুধবার লালবাজারের ডিটেকটিভ ডিপার্টমেন্টে হাজির হওয়ার জন্য তাঁকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। গত শনিবার, ১৪ এপ্রিল হাসিব আহমেদকে লালবাজারে ডাকা হয়েছিল। সূত্রের খবর, হাসিব লালবাজারের অফিসারদের ফোন করে কয়েকদিন সময় চান। কিন্তু কলকাতা পুলিশের ডিটেকটিভ ডিপার্টমেন্ট হাসিবকে বেশি সময় দিতে রাজি নয়। ১৮ এপ্রিলই তাঁকে লালবাজারে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। দ্বিতীয় নোটিশেও সামির দাদা হাজিরা না দিলে তাঁর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কড়া ব্যবস্থা নেওয়া বলে লালবাজার সূত্রে জানা গিয়েছে। হাসিবকে জিজ্ঞাসাবাদের পর জাতীয় দলের পেসার মহম্মদ সামিকেও ডেকে পাঠানো হবে বলে লালবাজারের খবর।

জাতীয় দলের পেসার মহম্মদ সামি, তাঁর দাদা হাসিব এবং পরিবারের একাধিক সদস্যের বিরুদ্ধে সম্প্রতি যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহান। মারধর, খুনের চেষ্টা থেকে শুরু করে হাসিবের বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টাসহ একাধিক গুরুতর অভিযোগ করেছিলেন হাসিন। অভিযোগে হাসিন জানান, উত্তর প্রদেশের বাড়িতে তাঁর স্বামী তাঁকে দাদা হাসিবের ঘরে ঢুকিয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। তারপর হাসিব তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এছাড়া সামি তাঁকে খুনের চেষ্টাও করেছেন বলে হাসিন লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। সামির বিরুদ্ধে এনেছিলেন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ। ঘটনার গুরুত্ব বুঝে কেসের তদন্ত হাতে নেয় কলকাতা পুলিশের ডিটেকটিভ ডিপার্টমেন্ট।

মহম্মদ সামি এবং হাসিবের বিরুদ্ধে একাধিক তথ্য গোয়েন্দাদের কাছে জমা দেন হাসিন। সেই তথ্য ফরেনসিক পরীক্ষার জন্যও পাঠান অফিসাররা। ঘটনার তদন্তে কলকাতা পুলিশের অফিসাররা উত্তর প্রদেশে মহম্মদ সামির বাড়িতেও গিয়েছিলেন। সেখান থেকেও অফিসাররা কিছু তথ্য সংগ্রহ করেন। লালবাজারের খবর, তদন্তে হাসিবের বিরুদ্ধে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সূত্র মিলেছে। সেই সূত্র ধরে সম্প্রতি অফিসাররা হাসিনের সঙ্গেও কথা বলেন। আর তারপরই সামির দাদা হাসিবকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য লালবাজারে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। লালবাজারের ডিটেকটিভ ডিপার্টমেন্টের এক অফিসার জানান, ‘হাসিনের অভিযোগের ভিত্তিতে হাসিব আহমেদকে বিস্তারিত জিজ্ঞসাবাদের প্রয়োজন। হাসিবের বিরুদ্ধে যে তথ্য মিলেছে সে ব্যাপারে তাঁর কথায় কোনও অসঙ্গতি আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার। এবারও হাসিব হাজিরা না দিলে তাঁর বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ কলকাতা পুলিশ সূত্রের খবর হাসিবের পর কয়েক দিনের মধ্যেই জাতীয় দলের পেসার মহম্মদ সামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য লালবাজারে ডাকা হবে।          

 

Comments
Loading...