অনলাইনে মদ কিনতে গিয়ে ২৪ হাজার টাকা খোয়ালেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহনের মিডিয়া পরামর্শদাতা সঞ্জয় বারু

‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ বই লিখে জাতীয় রাজনীতিতে তোলপাড় ফেলে দিয়েছিলেন মনমোহন সিংহ প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন তাঁর মিডিয়া পরামর্শদাতা সঞ্জয় বারু। ২০১৮ সাল পর্যন্ত ছিলেন বণিক সভা ফিকির সেক্রেটারি জেনারেল। বর্তমানে অবসর জীবন কাটাচ্ছেন একদা বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের চিফ এডিটর তথা দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়ার অ্যাসোসিয়েট এডিটর সঞ্জয় বারু। সেই বারুকেই ছুটতে হল থানায়। কারণ অনলাইনে মদ কিনতে গিয়ে ২৪ হাজার টাকা খুইয়ে বসেছেন তিনি। ঘটনায় গ্রেফতার এক।

লকডাউন চলাকালীন সম্প্রতি অনলাইন মদ সরবরাহকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন সঞ্জয় বারু। জানা গিয়েছে, খুঁজতে খুঁজতে ইন্টারনেটে এমন একটি ফোন নম্বর পান যারা মদের হোম ডেলিভারি করে। সঙ্গে সঙ্গে বারু ফোন ঘোরান সেই নম্বরে। দোকানের নাম ‘লা কেভ ওয়াইন অ্যান্ড স্পিরিটস’। তাঁকে জানানো হয়, সব ব্র্যান্ডই মজুত। কিন্তু হাতে পেতে ২৪ হাজার টাকা অনলাইন ট্রান্সফার করতে হবে। সাতপাঁচ না ভেবে দ্রুত ২৪ হাজার টাকা পাঠিয়ে দেন জেএনইউয়ের প্রাক্তনী সঞ্জয় বারু। অভিযোগ, এরপর সেই ফোন নম্বরে বারবার ফোন করলেও তা বন্ধ ছিল।

হাতে পেলেন না মদ, মাঝখান থেকে খোয়া গেল ২৪ হাজার টাকা। পুলিশে অভিযোগ জানান মনমোহন জমানায় প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া পরামর্শদাতা। রবিবার পুলিশ এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত একটি ক্যাব চালান। ক্যাব ড্রাইভার জানিয়েছেন, তাঁর নাম ব্যবহার করে কয়েকজন ভুয়ো সিম তুলে মানুষকে বোকা বানাচ্ছে। একাধিক রাজ্যে একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সেই টাকা ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তারপর ভাগ বাটোয়ারা করে যে যার মতো নিজের অ্যাকাউন্টে নিয়ে নিচ্ছেন টাকা। ধৃত ক্যাব ড্রাইভার পুলিশকে জানিয়েছেন, গোটা প্রক্রিয়াটি ১০ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যে সেরে ফেলা হচ্ছে। ফলে পুলিশের নজরে আসার সম্ভাবনাও খুব কম।

Comments
Loading...