রাজীব কুমার, মুখ্য সচিব ও ডিজির বিরুদ্ধে হওয়া আদালত অবমাননার মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল সুপ্রিম কোর্টে

সুপ্রিম কোর্টে সিবিআইয়ের দায়ের করা কলকাতার সদ্য প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার, ডিজি ও রাজ্যের মুখ্য সচিবের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল। মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ২৭ ফেব্রুয়ারি।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বেঞ্চে এই মামলার শুনানির কথা ছিল। কিন্তু শুনানি শুরুর আগেই বেঞ্চের অন্যতম বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাও মামলা শোনা থেকে অব্যাহতি চান। বিচারপতি রাও বলেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের হয়ে একটি মামলায় তিনি কৌসুলি হিসেবে সওয়াল করেছিলেন। তাই এই মামলায় তাঁর পক্ষে বিচারপতি হিসেবে থাকা সম্ভব নয়। এরপরই প্রধান বিচারপতি মামলার শুনানি মুলতুবি করে দেন। আগামী ২৭ তারিখ এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

৩ রা ফেব্রুয়ারি, রবিবার সন্ধ্যায় সিবিআইয়ের ৪০ জন অফিসার লাউডন স্ট্রিটে তত্কালীন পুলিশ কমিশনার তথা সারদা মামলায় গঠিত সিটের প্রধান রাজীব কুমারের বাসভবনে হানা দেন। তাঁদের ঢুকতে বাধা দেওয়া নিয়ে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বিরোধী রাজ্যের মুখ বন্ধ করতে লোকসভা ভোটের আগে মোদী সরকার সিবিআই দিয়ে ভয় পাওয়ানোর চেষ্টা করছে এই অভিযোগ তুলে মেট্রো চ্যানেলে ধরনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনার প্রেক্ষিতেই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ উপেক্ষা করার অভিযোগে কলকাতার তত্কালীন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার, মুখ্য সচিব মলয় দে ও ডিজি বীরেন্দ্রর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করে সিবিআই। সোমবার আলাদা আলাদাভাবে তিন আধিকারিকই তাঁদের জবাব জমা দেন। সেই মামলারই শুনানি হওয়ার কথা ছিল বুধবার।

সূত্রের খবর, রাজ্যের তিন গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকই জবাবে সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়েছেন, কোনওভাবেই সিবিআই তদন্তের সঙ্গে অসহযোগিতা করা হয়নি। সিবিআই যখনই তদন্তের স্বার্থে যে নথি বা তথ্য চেয়েছে সবই দেওয়া হয়েছে তাদের। এমনকী তদন্তকারীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য সিপি, ডিজি একাধিকবার চিঠি দিলেও, সিবিআই-এর কাছ থেকে কোনও জবাব মেলেনি।

Comments
Loading...