এজলাসে মহিলাদের মর্যাদাহানি বন্ধে বিশ্ব নারী দিবসে প্রধান বিচারপতিকে খোলা চিঠি ইন্দিরা জয়সিংহের

শীর্ষ আদালতে মহিলাদের বিরুদ্ধে মর্যাদাহানিকর মন্তব্য ও ব্যবহার বন্ধ হোক, ৮ই মার্চ বিশ্ব নারী দিবসে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈকে খোলা চিঠি দিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহ।
চিঠির প্রথম ভাগে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহ লিখেছেন, ভাষা, আইনের পেশায় অস্ত্র, আবার ঢালও বটে। ভাষা ব্যবহার করে তাঁরা বিচারের জন্য সওয়াল করেন আদালতে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, শীর্ষ আদালতে এই ভাষার লড়াইয়ে অনেক সময়ে পুরুষ আইনজীবী প্রতিপক্ষ মহিলা আইনজীবীর সম্পর্কে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করে বসেন। অনেক সময় যা ব্যক্তিগত আক্রমণে পর্যন্ত পর্যবসিত হয়।
আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহ তাঁর দীর্ঘ কর্মজীবনে ঘটা এমন বেশ কিছু ঘটনার কথা তুলে ধরেছেন চিঠিতে। তাঁর অভিযোগ, প্রতিপক্ষ আইনজীবী যখন এমন কোনও বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করে ফেলেন, উপস্থিত বিচারপতিও তার কোনও প্রতিবাদ করেন না। দু’দিন আগেই অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে বেনুগোপাল তাঁকে একজন স্বতন্ত্র আইনজীবীর বদলে বিশিষ্ট আইনজীবীর স্ত্রী হিসেবে সম্বোধন করেন। যদিও পরে নিজের ভুল স্বীকার করেছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল। কিন্তু বিচারপতি এর কোনও প্রতিবাদ করেননি, অভিযোগ লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা লড়া প্রখ্যাত আইনজীবীর।
বিভিন্ন সময় এইরকম নারীবিদ্বেষী এবং অবমাননাকর মন্তব্য ও ব্যবহারের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। আইনজীবী জয়সিংহ দূরদর্শনের একটি অনুষ্ঠানের কথা উল্লেখ করেছেন তাঁর চিঠিতে। যেখানে এক আইনজীবী প্যানেলে বসা সহকর্মীকে বলছেন, যদি ভয় পেয়ে থাকেন পেটিকোট আর চুড়ি পরুন। তেমনি শীর্ষ আদালতে আইনী লড়াইয়ে তাঁকে এক পুরুষ আইনজীবী সম্বোধন করেন ‘ওই মহিলা’ বলে। যদিও আইনি লড়াইয়ে সহকর্মীদের ‘মাই লার্নেড ফ্রেন্ড’ বলে সম্বোধন করাই দস্তুর বলে জানান ইন্দিরা জয়সিংহ। এই মর্যাদাহানিকর মন্তব্যের প্রতিবাদ করে যখন তিনি বিচারপতির কাছে হস্তক্ষেপের আর্জি জানান, তখন বিচারপতির সকৌতুক উক্তি, আপনার আলাদা করে নিরাপত্তার প্রয়োজন নেই। আপনি ইতিমধ্যেই ‘ওভার প্রোটেক্টেড’।
প্রধান বিচারপতিকে লেখা চিঠিতে সিনিয়র আইনজীবী ইন্দিরা সিংহ জানান, যখন নিজের অধিকারের জন্য লড়াই করেন, সমান অধিকারের জন্য সওয়াল করেন তখনও একজন নারী হিসেবে বৈষম্যের শিকার হতে হয় আদালত চত্ত্বরে। সিসিটিভি নজরদারি সত্ত্বেও, সুপ্রিম কোর্টের করিডরে এই বয়সেও তাঁকে যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন ২০১৮ সালের ফোবর্স পত্রিকায় Greatest Leaders of the World-এর তালিকায় জায়গা করে নেওয়া এই আইনজীবী।
নারী দিবসে প্রধান বিচারপতির কাছে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহের আবেদন, দেশের প্রতিটি আদালতের ভেতরে ও বাইরে বিচারপতি থেকে আইনজীবীরা যেন আরও সংবেদনশীল হন। সংবিধানের ১৫ নম্বর ধারা সব লিঙ্গের মানুষের সমান অধিকারকে মান্যতা দেয়। চিঠিতে তাও উল্লেখ করেছেন এই সিনিয়র আইনজীবী।

 

Comments
Loading...