সিএএ বিরোধিতায় এবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা এসএফআই-র

কেন্দ্রের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে ‘অসাংবিধানিক’ আখ্যা দিয়ে একে চ্যালেঞ্জ করে এবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা করল বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই। শনিবার এই মামলার আবেদনে স্টুডেন্টস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া-র দাবি, নয়া নাগরিকত্ব আইনের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করছে সংবিধানের ৩২ নম্বর ধারা। ধর্মের ভিত্তিতে শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়া ‘অসাংবিধানিক’ বলে দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে এই মামলা করেছে বাম ছাত্র সংগঠন। তাদের দাবি, এই কেন্দ্রীয় আইনের বড় প্রভাব পড়বে দেশের ছাত্র ও যুব সম্পদায়ের উপর। সরকার ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিক ও অ-নাগরিকের পার্থক্য খুঁজতে বসলে এই আইনের সবচেয়ে বড় বলি হতে হবে ছাত্র সমাজকে। নয়া নাগরিকত্ব আইন সংবিধানের ১৪ নম্বর ধারায় মানুষের সমান অধিকারের সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ। এ দেশে ধর্মের ভিত্তিতে এমন আইনের কোনও প্রয়োজন নেই বলে পিটিশনে জানিয়েছে এসএফআই।
সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা মামলার আবেদনে বাম ছাত্র সংগঠন আরও জানায়, সংবিধানের ১৯ (১) ধারা দেশের প্রতিটি নাগরিকের অধিকার দিয়েছে তাঁদের পছন্দমতো স্বাধীন ব্যবসা, পেশা বা বিভিন্ন কাজ বেছে নেওয়ার। কিন্তু নয়া নাগরিকত্ব আইন তার বিরোধী। পড়াশোনার শেষে যে যুব সম্প্রদায় দেশে-বিদেশে নিজেদের পেশা শুরু করতে চায়, তাদের উপর প্রভাব ফেলবে কেন্দ্রের নয়া নাগরিক আইন। সুতরাং, এই নাগরিকত্ব আইন দেশের যুব সম্প্রদায়ের স্বপ্নপূরণের পথেও বাধা সৃষ্টি করবে বলে দাবি করেছে এসএফআই।
তাছাড়াও এনআরসি এবং এনপিআর দেশের অর্থনীতির বিরোধী বলে অভিযোগ করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে দেওয়া আবেদনে বলা হয়েছে, এনআরসি ও এনপিআর প্রয়োগের ফলে প্রচুর মানুষের পেশা প্রশ্নের মুখে পড়ে যাবে। প্রচুর মানুষের কর্মহীন হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হবে। তাই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন প্রত্যাহার করার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দিক শীর্ষ আদালত, আদালতে এমনই আর্জি এসএফআই-র।

Comments
Loading...