নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে সাহিত্য একাডেমি ফেরাচ্ছেন উর্দু সাহিত্যিক শিরিন দালভি

সোমবার লোকসভার পর বুধবার রাজ্যসভাতেও পাশ হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। ইতিমধ্যে এই বিলের প্রতিবাদ শুরু হয়েছে দেশজুড়ে। অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি অসম ও ত্রিপুরায়। আগুনে বিক্ষোভের জেরে সেখানে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবা। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে লোকাল ও দূরপাল্লার ট্রেন চলাচল। গুয়াহাটি ও ডিব্রুগড় বিমানবন্দর থেকে বিমান পরিষেবা বন্ধ রেখেছে বিভিন্ন বিমান সংস্থা। পরিস্থিতি সামাল দিতে ত্রিপুরা ও অসমে নামনো হয়েছে সেনা, আধাসেনা। জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা, কার্ফু।
কেন্দ্রের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি তো বটেই এই বিলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন লেখক, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী, সমাজকর্মী, এমনকী সরকারি কর্মীরাও। এবার এই বিলের বিরোধিতা করে সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন বিশিষ্ট উর্দু লেখক ও সাংবাদিক শিরিন দালভি। বিলকে বিভেদমূলক এবং বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে তিনি বলেছেন, দেশের সংবিধান ও ধর্মনিরপেক্ষতার উপর আঘাত হেনেছে এই বিল।
২০১১ সালে সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার পেয়েছিলেন বিশিষ্ট এই সাহিত্যিক। শিরিন দালভি জানিয়েছেন, ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রাখা এবং গণতন্ত্রের পক্ষে আন্দোলনে যোগ দিতেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

 

Comments
Loading...