সিধুকে ঢুকতে দেওয়া হবে না উত্তর প্রদেশের বাঘপত জেলায়, ঘোষণা হিন্দু জাগরণ মঞ্চের

ইমরানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে পাকিস্তানে যাওয়া দিয়ে শুরু হয়েছিল বিতর্ক। সেখানে গিয়ে প্রাক্তন ক্রিকেটার, কংগ্রেস নেতা এবং পঞ্জাবের মন্ত্রী নভজ্যোত সিংহ সিধুর পাক সেনাপ্রধানকে আলিঙ্গনের পর সেই বিতর্ক আরও বেড়েছে। এদেশে সিধুর বিরুদ্ধে সুর চড়াতে শুরু করেছে একাধিক হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। এমনকী সিধুকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয়েছে। এবার উত্তর প্রদেশের বাঘপত জেলায় সিধুকে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে ফতোয়া জারি করল হিন্দু জাগরণ মঞ্চ। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের শাখা সংগঠন এই হিন্দু জাগরণ মঞ্চের পক্ষ থেকে বাঘপত জেলার বিভিন্ন জায়গায় রীতিমতো পোস্টারও মারা হয়েছে।

ইমরান খানের আমন্ত্রণে তাঁর শপথে যোগ দিতে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন সিধু। জানিয়েছিলেন, এটি তাঁর ব্যক্তিগত সফর, যেখানে বন্ধুর আমন্ত্রণে তিনি সে দেশে যাচ্ছেন। কিন্তু বিতর্কের সূত্রপাত সেখানে পাক সেনাপ্রধান কামার বাজওয়াকে তাঁর আলিঙ্গনের ঘটনায়। এই কাজ করে সিধু ঠিক করেননি বলে জানিয়ে দেন পঞ্জাবের কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রীও। কংগ্রেসও সরকারিভাবে জানায়, সিধুর পাক সফরের সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই। যদিও পাকিস্তানে যাওয়ার জন্য সিধুকে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন নয়া পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

কিন্তু এই বিতর্ক যেন পিছু ছাড়তেই চাইছে না সিধুর। তাঁর সমালোচনায় সরব হন বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্র প্রাক্তন ক্রিকেটার সিধুর কড়া সমালোচনা করেন। এবার হিন্দু জাগরণ মঞ্চের পক্ষ থেকে সিধুকে উত্তর প্রদেশের বাঘপত জেলায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

Comments
Loading...