হিমাচলের কুলদীপকে গরু ফেরাচ্ছেন সোনু সুদ, আয়ের উৎস বেচে ছেলেদের স্মার্টফোন কিনে দেন বাবা

কখনও ভিন রাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর বন্দোবস্ত, কখনও আবার লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের কাজের ব্যবস্থা। বাড়ির ফেরার পথে যে পরিযায়ী শ্রমিকরা প্রাণ হারিয়েছেন, তাঁদের অনেকের পরিবারের কাছে মাসিক ভাতাও পৌঁছে দিয়েছেন। এবার বলিউড তারকা সোনু সুদ এগিয়ে এলেন হিমাচলের কুলদীপ কুমারকে সাহায্য করতে।

হিমাচলপ্রদেশের জ্বালামুখীর কুলদীপ কুমার দুই ছেলের অনলাইন ক্লাসের জন্য স্মার্টফোন কিনতে পরিবারের আয়ের প্রধান উৎস গরু বেচতে বাধ্য হয়েছিলেন। ফলে রাতারাতি আয়ের একমাত্র উপায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল ওই পরিবারের। কিন্তু ছেলেদের পড়াশোনার কথা ভেবে চরম ঝুঁকি নিতে পিছপা হননি কুলদীপ। কিন্তু কীভাবে চলবে সংসার? মুশকিল আসান হিসেবে সামনে এলেন সেই সোনু সুদ। কুলদীপকে গরু কিনে দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন সোনু।

হিমাচলপ্রদেশের কৃষক কুলদীপ কুমারের দুই সন্তান অন্নু ও দীপু যথাক্রমে চতুর্থ ও দ্বিতীয় শ্রেণির পড়ুয়া। করোনা আবহে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকার পর ক্লাস শুরু হয়েছে অনলাইনে। সেই ক্লাসে যোগ দিতে দরকার স্মার্টফোন। অথচ দরিদ্র পরিবারে স্মার্টফোন কেনার মতো টাকা ছিল না। বহু চেষ্টা করেও টাকা যোগাড় করতে না পেরে পোষা গরুটিকে বিক্রি করে দেন কুলদীপ। সোশ্যাল মিডিয়ায় তা চোখে পড়ে অভিনেতা সোনু সুদের। তিনি ওই কৃষকের বিবরণ চান। তাঁকে সাহায্য করার আশ্বাস দেন। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে তিনি লেখেন, ‘চলুন এই মানুষটির গরু ফিরিয়ে দেওয়া যাক। কেউ আমাকে ওই ব্যক্তির সঠিক ঠিকানা দিয়ে সাহায্য করুন।’

পর্দার খলনায়কের এই মানবিক উদ্যোগে মুগ্ধ নেটিজেনরা। কেউ লেখেন, একটা হৃদয় আর কতবার জিতবেন সোনু সুদ? কেউ লেখেন, আমাদের দেশের রাজনৈতিক নেতাদের কর্তব্য পালন করছেন একজন অভিনেতা। আর নেতারা এখন বাস্তবে অভিনেতা।

ছোট্ট মাটির বাড়িতে থাকা গরিব কুলদীপ কুমার জানিয়েছিলেন বিপিএল তালিকায় তাঁর নাম নেই। কোনও সরকারি প্রকল্পের সাহায্যও পান না তিনি। ভাঙা বাড়ি সারাতে বহুবার পঞ্চায়েত অফিসে আবেদন করেও ফল হয়নি। সহায় সম্বলহীন কুলদীপের শুধু আশা, দুই সন্তান পড়াশোনা করে নিজের পায়ে দাঁড়াবে, অভাব মুছবে কুলদীপের পরিবার থেকে। তাই গরু বিক্রি করেও তাদের পড়াশোনা চালাতে পিছপা হননি তিনি। সেই খবর পেয়ে এবার এগিয়ে এলেন সোনু সুদ।

Comments
Loading...