দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের পর গঙ্গারামপুর পুরসভা দখল করল তৃণমূল, বড় ধাক্কা বিজেপির

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের পর এই জেলারই গঙ্গারামপুর পুরসভাতেও আস্থা ভোটে জয় পেল তৃণমূল। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ মতো সোমবার গঙ্গারামপুর পুরসভায় আস্থা ভোট হয়। তাতে জিতে পুরসভা দখলে নিল তৃণমূল।
লোকসভা ভোটের পরই দক্ষিণ দিনাজপুরের তৎকালীন তৃণমূলের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। বিপ্লব মিত্রর সঙ্গেই বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁর ভাই প্রশান্ত মিত্র এবং বেশ কয়েকজন জেলা পরিষদ সদস্য। সাময়িকভাবে দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা পরিষদ হাতছাড়া হয় তৃণমূলের। প্রশান্ত মিত্র ছিলেন গঙ্গারামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান। তিনিও বিজেপিতে চলে যাওয়ায় এই পুরসভাও তৃণমূলের হাতছাড়া হওয়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছিল।
সম্প্রতি দক্ষিণ দিনাজপুরে দলত্যাগী কয়েকজন জেলা পরিষদ সদস্য তৃণমূলে ফিরে আসেন। তারপর এই জেলা পরিষদে আস্থা ভোট হয়, এবং তৃণমূল সহজেই তা বিজেপির হাত থেকে পুনরুদ্ধার করে। এরই মধ্যে তৃণমূলের পক্ষ থেকে গঙ্গারামপুর পুরসভায় অনাস্থা  আনা হয়। গত মাসেই আস্থা ভোট হওয়ার কথা থাকলেও, বিজেপি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। আদালত আস্থা ভোট পিছিয়ে তা ৫ ই অগাস্ট করার জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়।
সূত্রের খবর, এদিন সকালে গঙ্গারামপুর পুরসভায় আস্থা ভোট শুরু হয়। এই পুরসভায় মোট কাউন্সিলারের সংখ্যা ১৮। তৃণমূলের ১১ জন কাউন্সিলার উপস্থিত থাকলেও, বিজেপিতে যোগ দেওয়া কাউন্সিলাররা কেউ হাজির হননি। সহজেই তৃণমূল গঙ্গারামপুর পুরসভা দখল করে। বিপ্লব মিত্র বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তৃণমূল প্রথমে জেলা পরিষদ এবং এদিন গঙ্গারামপুর পুরসভা দখল করায় বিজেপি এই জেলায় বড়সড় ধাক্কা খেল।
তৃণমূলের জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ বলেন, আমরা নিশ্চিত ছিলাম পুরসভা দখলের ব্যাপারে। জেলা পরিষদ পুনরুদ্ধার এবং এদিন গঙ্গারামপুর পুরসভায় জেতা এই জেলায় ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।
Comments
Loading...