মমতা ব্যানার্জি: কেন্দ্রের কাছে পাওনা প্রায় ১ লক্ষ কোটি, তা সত্ত্বে জনমুখী বাজেটে জোর সামাজিক সুরক্ষায়

কেন্দ্র প্রাপ্য দিচ্ছে না। অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের কথায়, কর সংগ্রহ থেকে শুরু করে জিএসটি এবং অনুদান মিলিয়ে ৫০ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা ছাড়া আরও প্রায় ৫০ হাজার কোটি, সবমিলিয়ে প্রায় ১ লক্ষ কোটি টাকা দিচ্ছে না কেন্দ্র। কিন্তু হকের টাকা ছাড়াই জনগণের বাজেট পেশ করল মা-মাটি-মানুষের সরকার। রাজ্য বিধানসভায় বাজেট শেষে সাংবাদিকদের কাছে এমনই মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি জানিয়ে দিলেন, এই বাজেট জনগণের সরকারের বাজেট, এই বাজেট জনগণের দরকারের বাজেট।

কেন্দ্রীয় বাজেটে একদিকে যেমন দেখা গিয়েছিল, বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যয়বরাদ্দ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে, ঠিক সেখানেই রাজ্য বাজেটে বরাদ্দ বাড়ল প্রায় সব ক্ষেত্রেই। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, উচ্চ শিক্ষায় ২০ গুণ এবং কৃষিক্ষেত্রে প্রায় ১০ গুণ বরাদ্দ বৃদ্ধি করেছে তাঁর সরকার। রাজ্যে তৈরি হবে ৩ টি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়। তারমধ্যে কৃষ্ণনগরে হবে কন্যাশ্রী বিশ্ববিদ্যালয় এবং তপশিলি জাতির পড়ুয়াদের জন্য হবে আম্বেডকর ইউনিভার্সিটি। এছাড়াও আরও একটি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হবে বলে বাজেটে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

কেবলমাত্র শিক্ষাই নয়, বেকার যুবক-যুবতীদের কাজের সুযোগ তৈরি করতে কর্মসাথী প্রকল্পে ৫০০ কোটি টাকা দিয়েছেন অমিত মিত্র। এই প্রকল্পে বেকার যুবক-যুবতীদের ২ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে। এছাড়া চা শিল্পের গৃহহীন শ্রমিকদের জন্য চা সুন্দরী প্রকল্পে বাড়ি তৈরি করে দেবে রাজ্য।

এবারের রাজ্য বাজেটে রয়েছে আরও একটি তাৎপর্যপূর্ণ ঘোষণা। এবার গরিব প্রান্তিক মানুষদের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ দিতে আসছে হাসির আলো প্রকল্প। এতে ৩৫ লক্ষ পরিবার উপকৃত হবেন। যে সব পরিবারে ৩ মাসে ৭৫ ইউনিট বিদ্যুত ব্যবহার হয়, তার জন্য কোনও টাকা দিতে হবে না।

বাজেট পেশের পরই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মুখ্যমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কেন্দ্র প্রতিটি ক্ষেত্রে বরাদ্দ কমিয়ে দিলেও বাংলার সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যয়বরাদ্দ বৃদ্ধি করেছে। মমতা বলেন, কেন্দ্রের থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকা প্রাপ্য থাকলেও, বাজেটকে জনমুখী করতে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখা হয়নি। পাশাপাশি ১০০ দিনের কাজ থেকে ইজ অফ ড্যুয়িং বিজনেস, সবেতেই বাংলা বাকিদের অনেকটা পিছনে ফেলে দিয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। আগামী দিনে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সমস্ত বঙ্গবাসীর জীবন আরও সহজ করে তুলতে তাঁর সরকার বদ্ধ পরিকর, বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

Comments
Loading...