ভবানীপুরে মমতা-বিজেপি দ্বিমুখী লড়াই? ইঙ্গিত প্রদেশ কংগ্রেসের

সম্প্রতি চার হেভিওয়েট নেতার গ্রেফতারি থেকে আলাপন ব্যানার্জির বদলির নির্দেশ, সবকটি ইস্যুতেই কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বকে পাশে পেয়েছেন মমতা

উপনির্বাচনে ভবানীপুর কেন্দ্রে মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে সম্ভবত প্রার্থী দিচ্ছে না কংগ্রেস। প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরী জানান, রাজ্যে বিপুল জনসমর্থনকে সম্মান জানাতে কংগ্রেস ভবানীপুরে মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতিমধ্যেই অধীর তাঁর প্রস্তাব দিল্লিতে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বকে পাঠিয়েছেন। সেখানে কী সিদ্ধান্ত হচ্ছে সেটাই দেখার।

রাজ্য রাজনীতিতে তৃণমূল নেত্রীর চরম বিরোধী হিসেবেই বহরমপুরের সাংসদের পরিচিত। যার জেরে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির এধরনের ঘোষণায় নেপথ্যে অন্য সমীকরণ দেখছেন রাজনৈতিক কারবারিরা। একুশের নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রধান বিরোধী মুখ হিসেবে মমতা ব্যানার্জির নাম নিয়ে আলোচনা চলছে সারা দেশে। সম্প্রতি চার হেভিওয়েট নেতার গ্রেফতারি থেকে আলাপন ব্যানার্জির বদলির নির্দেশ, সবকটি ইস্যুতেই কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বকে পাশে পেয়েছেন মমতা।

ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের মতে ২০২৪ এ দেশে মমতাকে সঙ্গে নিয়েই বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামতে চায় কংগ্রেসের একটি অংশ। তারই আগাম বার্তা হিসেবে কী ভবানীপুরের প্রার্থী না দেওয়ার সিদ্ধান্ত?
জল্পনায় গুরুত্ব দিচ্ছেন না অধীর চৌধুরী। তাঁর বক্তব্য, মুখ্যমন্ত্রীকে সম্মান জানাতেই এই সিদ্ধান্ত। এটা কোনও নির্বাচনী আঁতাত নয়। প্রতীকী একটা সিদ্ধান্ত হতে পারে। সেই সঙ্গে তিনি জানান, ভবানীপুর প্রার্থী না দিলেও উপনির্বাচনে অন্য আসনগুলিতে কংগ্রেস প্রার্থী দেবে।

ভবানীপুরে প্রার্থী না দেওয়া নিয়ে সিপিএমের তরফে কিছু জানা যায়নি। জোটের হিসেব অনুযায়ী ভবানীপুরে কংগ্রেস প্রার্থী দেয়। তাই সেখানে কংগ্রেস প্রার্থী না থাকলে বামেরা প্রার্থী দেবে কিনা জানা যায়নি।

Comments
Loading...