সমস্ত রাজ্য সরকারি কর্মী ও পেনশনপ্রাপকদের সরকারি হাসপাতালে পে কেবিনের সুযোগ, নির্দেশিকা অর্থ দফতরের

রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রকল্পের আওতায় থাকা রাজ্য সরকারের সমস্ত কর্মী ও অবসরপ্রাপ্ত পেনশনপ্রাপক হাসপাতালে পে কেবিনে চিকিৎসার সুযোগ পাবেন। অর্থ দফতরের তরফে এমনই সংশোধিত নির্দেশিকা জারি করা হল।
এর আগে অর্থ দফতরের এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছিল, ১৭ হাজার থেকে ৪৫ হাজার টাকা বেতনের সরকারি কর্মচারী ও ৮ হাজার ৫০০ টাকা থেকে সাড়ে ২২ হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশনভোগীরা স্বাস্থ্য প্রকল্পের আওতায় এই পরিষেবা পাবেন না। সংশ্লিষ্ট আর্থিক পরিমাণের থেকে বেশি বেতন ও পেনশন পেলে তবেই সরকারি হাসপাতালে পে কিবিন পাওয়ার যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হবেন কর্মীরা। এই নির্দেশিকা নিয়ে সরকারি কর্মী ও পেনশনভোগীদের একাংশের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। রাজ্যের এই নির্দেশিকা পরিবর্তনের জন্য লিখিত দাবিও জানান তাঁরা। এরপরেই সংশোধিত নির্দেশিকা জারি করেছে অর্থ দফতর।
ইতিমধ্যেই এসএসকেএম ও মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পে কেবিনে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা ব্যবস্থা চালু হয়ে গিয়েছে। কলকাতা-সহ জেলার আরও বেশ কিছু সরকারি হাসপাতালে আগামী দিনে এই ব্যবস্থা চালু হবে বলে খবর।
প্রসঙ্গত, সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্পের সুযোগ নিলে সরকারি কর্মী ও পেনশন প্রাপকরা চিকিৎসা ভাতা পান না। আগে এই ভাতার আর্থিক পরিমাণ ছিল মাসে ৩০০ টাকা। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হওয়ার পর তা বেড়ে ৫০০ টাকা করা হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে সরকারি কর্মী সংগঠনগুলির তরফে প্রশ্ন তোলা হয়, একই পরিমাণ টাকা কাটা সত্ত্বেও সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা পরিষেবায় বেতন বা পেনশনের পরিমাণের ভিত্তিতে কেন বৈষম্য থাকবে? এরপরেই নয়া নির্দেশিকা দিয়ে রাজ্য জানায়,সব কর্মী, পেনশনভোগী সরকারি হাসপাতালে পে কেবিন পাবেন।

Comments
Loading...