‘আর এক ধাপ পেরলেই তোলাবাজ ভাইপো’, নন্দীগ্রাম থেকে অভিষেককে তোপ শুভেন্দুর

খুব কাছাকাছি চলে এসেছে সিবিআই। আর এক ধাপ পেরলেই তোলাবাজ ভাইপো।’ এভাবেই নন্দীগ্রাম থেকে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জিকে নিশানা করলেন শুভেন্দু অধিকারী।

গরু ও কয়লাপাচার কাণ্ডে সিবিআইয়ের তল্লাশিতে জড়িয়েছে যুব তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক বিনয় মিশ্রের নাম। তাঁর তিনটি ঠিকানায় তল্লাশি চালাচ্ছে সিবিআই। সেই প্রসঙ্গে টেনে যুব তৃণমূলের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জিকে আক্রমণ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। শুক্রবার তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবসেই নন্দীগ্রামের সোনাচূড়ার সভা থেকে শুভেন্দু বলেন, ‘বিনয় মিশ্রর বাড়িতে সিবিআই ঢোকার পর থেকে তোলাবাজ ভাইপোদের দরজা বন্ধ, মুখও বন্ধ। প্রথমে লালা আর এনামুল। গরু আর কয়লা। একটা ধাপ, তার পর বিনয় মিশ্র তিনি আবার তৃণমূল যুব কংগ্রেসের নেতা। আর একটা চৌকাঠ পেরোলেই তোলাবাজ ভাইপো। একদম কাছাকাছি এসে গিয়েছে।’

কয়েকদিন আগে শুভেন্দুকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে অভিষেক বলেছিলেন, আগে নিজের বাড়িতে পদ্মফুল ফুটিয়ে দেখান। তার জবাবে এদিন শুভেন্দুর মন্তব্য, ‘রামনবমী অভি বাকি হ্যায়। সবে তো কুড়ি এসেছে পদ্মে। ভোট তো দেরি আছে। ভোটের আগে রামনবমী করব আমরা। নির্বাচন বিধি চালু হলেই খেলা দেখবেন।’‌ বলেব, কাঁথিতে তৃণমূলটাকে ঝেটিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

কয়েকদিন আগে নন্দীগ্রাম টাউন ক্লাবের বজরঙবলি পুজোর অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে শুভেন্দুর অনুগামীদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সেই অনুগামীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে এবং শুক্রবার সোনাচূড়ার এই সভা করেন শুভেন্দু। সেখান থেকে শুভেন্দুর হুঁশিয়ারি, সেদিন প্রস্তুত ছিলাম না। এবার হামলার খবর পেলেই নন্দীগ্রামে হাজির হব, বলেন প্রাক্তন বিধায়ক।

Comments
Loading...