৫ রাজ্যে ভোটের জন্য সংসদের অধিবেশন স্থগিত রাখার আবেদন সুদীপ-ডেরেকের

পশ্চিমবঙ্গ সহ আরও ৫ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। একই সময় চলবে সংসদের অধিবেশনও। কিন্তু প্রচারে ব্যস্ত সাংসদরা কী ভাবে যোগ দেবেন অধিবেশনে? এই প্রশ্ন তুলে লোকসভা ও রাজ্যসভায় চিঠি দিয়ে অধিবেশন আপাতত স্থগিত রাখার আবেদন করা হল তৃণমূলের পক্ষ থেকে। তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন রাজ্যসভার চেয়ারম্যানের কাছে একটি চিঠির মাধ্যমে অধিবেশন স্থগিত রাখার আবেদন করেন।

চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গে ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে আগামী ২৭ মার্চ থেকে। ফলপ্রকাশ ২ মে। বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় ভাগ শুরু হচ্ছে ৮ মার্চ থেকে। এই অবস্থায় ভোট প্রচারে ব্যস্ত থাকতে হবে, স্বভাবতই তৃণমূলের সাংসদরা উপস্থিত থাকতে পারবেন না অধিবেশনে। সেই কারণে অধিবেশন স্থগিত রাখার আবেদন করেন রাজ্যসভার তৃণমূলের নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন ।

তৃণমূলের লোকসভার সাংসদ সুদীপ ব্যানার্জি লোকসভার স্পিকারকে এই মর্মে চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে আবেদন করেছেন, ৮ মার্চ থেকে আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত লোকসভার অধিবেশনে উপস্থিত থাকতে পারবেন না তৃণমূলের সাংসদরা। কারণ হিসেবে ৫ রাজ্যের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে দেখানো হয়েছে।

২০০৮ সালের সংসদের অধিবেশন শেষ হওয়ার কথা ছিল ২১ নভেম্বর। কিন্তু সেই সময় কয়েকটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের জন্য বেশ কিছুদিন মুলতুবি রাখা হয় অধিবেশন। সেবার অধিবেশন শেষ হয় ১০ ডিসেম্বর। চিঠিতে এমন একাধিক দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন তৃণমূলের লোকসভা ও রাজ্যসভার নেতা।

Comments
Loading...