গুগল সিইও-র ভূমিকা থেকে আরও একধাপ এগোলেন সুন্দর পিচাই। এবার গুগলের পেরেন্ট কোম্পানি অ্যালফাবেট-এর সিইও হলেন খড়গপুর আইআইটি-র এই প্রাক্তনী। অ্যালফাবেটের সহ প্রতিষ্ঠাতা সার্জি ব্রিন ও ল্যারি পেজের পদত্যাগের পর গুগলের পাশাপাশি পিচাইকে দেওয়া হল অ্যালফাবেট-এর সিইও-র দায়িত্ব।
২০১৫ সালে গুগল তাদের বিভিন্ন কোম্পানিকে ভাগ করার জন্য অ্যালফাবেট প্রতিষ্ঠা করে। এর সিইও হন প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ ও এবং প্রেসিডেন্টের পদে নিযুক্ত হন সার্জি বিন। মঙ্গলবার একটি ব্লগ পোস্টে অ্যালফাবেট-এর দুই প্রতিষ্ঠাতা তাঁদের পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেন। পেজ ও ল্যারি সেই ব্লগে লেখেন, সংস্থার পরিচালনার কাজে দীর্ঘদিন ধরে জড়িয়ে থাকতে পারাটা ভীষণ সৌভাগ্যের। তবে এবার সময় এসেছে গর্বিত বাবা-মায়ের ভূমিকা পালন করা, যাঁরা প্রয়োজনে উপদেশ ও ভালোবাসা দেবেন, কিন্তু কাউকে বিরক্ত করবেন না।
সংশ্লিষ্ট পদ থেকে সরে গেলেও সংস্থার বোর্ড সদস্য ও শেয়ার হোল্ডার এবং সহ প্রতিষ্ঠাতার দায়িত্ব পালন করবেন ল্যারি পেজ ও সার্জি বিন। এবার ল্যারি পেজের ছেড়ে যাওয়া দায়িত্ব সামলাবেন পিচাই।
চেন্নাইয়ের এই যুবক খড়গপুর আইআইটি থেকে মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বিটেক করেন। এরপর স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এমএস ডিগ্রি লাভ করে পেনসিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের হোয়ার্টন স্কুল থেকে এমবিএ করেন। ২০০৪ সালে গুগলে যোগ দেন পিচাই। প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিশেষ সুনাম অর্জন করেন। ২০০৮ সালে তাঁর নেতৃত্বেই ক্রোম ব্রাউজার বাজারে আসে। যা একধাক্কায় মাইক্রোসফটের ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের একাধিপত্যকে খানখান করে দেয়। একে একে ‘গুগল টুলবার’, ‘ডেস্কটপ সার্চবার’ এর মতো প্রোডাক্ট বাজারে আসে পিচাইয়ের হাত ধরে। এরপর গুগল অ্যান্ড্রয়েড-এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে নজর কাড়েন তিনি। এবার পিচাইয়ের হাতে এল অ্যালফাবেটের অধীনে থাকা অ্যান্ড্রয়েড, সার্চ, অ্যাড, গুগল ম্যাপের মতো ব্যবসার গুরু দায়িত্ব। তিনিও নতুন চ্যালেঞ্জ উপভোগ করতে তৈরি বলে ট্যুইটে জানান সুন্দর পিচাই।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe

You may also like